July 20, 2024, 7:26 am

সংবাদ শিরোনাম
বোরহানউদ্দিন থানা পুলিশের অভিযানে ১০ হাজার ইয়াবাসহ যুবক আটক পার্বতীপুরে নব-নির্বাচিত উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও ভাই চেয়ারম্যানদ্বয়ের সংবর্ধনা রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকা হতে জাল সার্টিফিকেট ও জাল সার্টিফিকেট তৈরীর সরঞ্জামাদিসহ ০২ জন’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ র‌্যাব-১০ এর অভিযানে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং এলাকা হতে ইয়াবাসহ ০১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কক্সবাজারে ভারী বৃষ্টিপাত পাহাড় ধ্বসে নারী-শিশু নিহত পীরগঞ্জে মসজিদের দোহাই সরকারি খাস জমির গাছ কর্তন পার্বতীপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা সিদ্দিক হোসেন এর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন দারুসসালাম লাফনাউট মাদ্রাসার দস্তারবন্দী নিবন্ধন ফরম বিতরণ শুরু পীরগঞ্জে নিখোঁজের একদিন পর শিশু’র লাশ উদ্ধার মাদক মামলায় ১৫ বছরের সাজাপ্রাপ্ত গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত দীর্ঘদিন পলাতক আসামী আলাউদ্দিন’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০

রংপুরে ডিসি অফিসের ভুয়া লাইসেন্সের আরো ৪৯ টি আগ্নেয়াস্ত্র জব্দ

রংপুরে ডিসি অফিসের ভুয়া লাইসেন্সের আরো ৪৯ টি আগ্নেয়াস্ত্র জব্দ

আব্দুল্লাহ্ আল মামুন, রংপুর ব্যুরো

রংপুর জেলা প্রশাসক অফিসের জেএম শাখার অফিস সহকারী শামসুল ইসলাম ডিসির স্বাক্ষর জাল করে অবৈধভাবে দেয়া ভুয়া লাইসেন্সের আরো ৪৯ টি অস্ত্র জব্দ করেছে দুদক। গত ২৪ অক্টোবর মঙ্গলবার রংপুর দুদক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান উপ-পরিচালক মোজাহার আলী সরদার।

তিনি জানান, গত ২ আগস্ট থেকে অস্ত্র ও লাইসেন্স জব্দ শুরু হয়। এ পর্যন্ত ৩১৩টি আগ্নেয়াস্ত্র ৩ হাজার ৫৩০ কার্তুজ জব্দ করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৪৮টি শর্টগান এবং ৬৫টি একনলা বন্দুক রয়েছে। লাইসেন্সধারিরা ১২টি আগ্নেয়াস্ত্রের দোকান থেকে এসব অস্ত্র ক্রয় করেছিলেন। এর মধ্যে ৮টি দোকানের আগ্নেয়াস্ত্র ক্রয় বিক্রয় সংক্রান্ত রেজিস্টারসহ সকল রেকর্ডপত্র জব্দ করা হয়েছে। আরো ৪০ থেকে ৫০টি অবৈধ লাইসেন্স ও আগ্নেয়াস্ত্র জব্দের প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে।

তিনি আরো জানান, রংপুর জেলা প্রশাসক অফিসের জেএম শাখার অফিস সহকারী শামসুল ইসলাম এবং ওই শাখার ভলিউম থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এখন পর্যন্ত ৩’শ বেশি ভুয়া অস্ত্রের হদিস পাওয়া গেছে। আগ্নোয়াস্ত্রের লাইসেন্স দেওয়া বন্ধ থাকার সময় তিনি তা দিয়েছেন। যা গুরুতর অপরাধ। গ্রেফতারকৃত শামসুল ইসলাম আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে অস্ত্র ক্রেতাদের নাম ঠিকানা বলেছে। এছাড়া শামসুল ইসলামের অস্ত্র ক্রেতা সংগ্রহের মূল হোতা আব্দুল মজিদকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের  দেয়া নাম ঠিকানা অনুয়ায়ী দুদক অস্ত্র ক্রেতাদের নোটিশ দিয়ে অস্ত্র জমা দিতে বলে। সেই ধারাবাহিকতায় অস্ত্র জব্দ করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, শামসুল ইসলাম রংপুর ডিসি অফিসের জেএম শাখার অফিস সহকারী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বিভিন্ন সময়ে ডিসি সই জাল করে ভুয়া আগ্নেয়াস্ত্রের লাইসেন্স দিয়েছেন তিনি। দুদক ও পুলিশ তাকে ৩ দফা রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে অস্ত্র বিক্রির কথা স্বীকার করেন। মামলাটি তদন্ত করছেন দুদকের সহকারী পরিচালক আতিকুল ইসলাম। এ ঘটনায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের প্রশাসনিক কর্মকর্তা অমূল্য চন্দ্র রায় বাদি হয়ে  মামলা করেন। পরে কোতয়ালী থানায় অস্ত্র আইনে আরো একটি মামলা করা হয়।

মামলাটি পরে দুদকে স্থানান্তর করা হলে রংপুর র‌্যাব-১৩ সদস্যরা গত ৬ জুলাই শামসুল ইসলামকে ঢাকা থেকে  গ্রেফতার করেন। গত ১৭ সেপ্টেম্বর টাঙ্গাইল থেকে তার সহয়োগী আব্দুল মজিদকে গ্রেফতার করা হয়।

Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর