May 26, 2024, 5:23 am

সংবাদ শিরোনাম
মাঝরাত্রে প্রবাসীর ঘরে ঢুকে স্ত্রীও মা কে ছুরি মেরে পালালো দুর্বৃত্তরা বগুড়ার শিবগঞ্জে জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের কমিটি গঠন: এমদাদুল আহবায়ক রবি সদস্য সচিব গাইবান্ধা প্রসক্লাব’র কমিটি গঠিত প্রধানমন্ত্রী হস্তক্ষেপ কামনা, বাগাতি পাড়ার ভূমিহীন রাবেয়া বেগমের জৈন্তাপুরে ৫১০ বোতল ফেনসিডিল সহ এক নারী আটক পটুয়াখালীতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু এন এস আই পরিচয় দিয়ে এন এস আই এ চাকরির মিথ্যা প্রলোভনে মোটা অংকের টাকা আত্মসাৎ আটক দুই পটুয়াখালীতে প্রতিমা ভাঙচুর ও স্বর্ণের চোখ চুরি মামলার প্রধান আসামি গ্রেফতার আদমদীঘিতে হেলমেট নেই, জ্বালানি নেই কার্যক্রম শুরু কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত থেকে অজ্ঞাত নারীর মরদেহ উদ্ধার

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে কাজ শুরু করেছে মিয়ানমার : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে কাজ শুরু করেছে মিয়ানমার : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক 

বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে মিয়ানমার কাজ শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তিনি বলেন, সু চির সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে তারা গ্রাউন্ডওয়ার্ক শুরু করেছেন। তিনি এও বলেছেন, তাদের ফিরিয়ে নেবেন। কফি আনান কমিশনের সুপারিশ পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন শুরু করবেন। আমরা আশা করি তারা তাদের কথা রাখবেন। সমস্যা তাদের, তাদেরকেই সমাধান করতে হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নিজ কার্যালয়ে তিনি এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, আমরা হাঁটা শুরু করেছি, গন্তব্যে পৌঁছাবই। আমরা দ্বিপাক্ষিকভাবে সমাধানের কথা বলেছি। এভাবে সমাধান না হলে এরপর আমরা বিভিন্ন পর্যায়ে যাবো। মন্ত্রী জানান, তারা বলেছেন তারা (রোহিঙ্গারা) আসতে চায় না। আমরা বলেছি, কেনো যেতে চায় না। তাদের আগে পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। এজন্য কফি আনান কমিশনের সুপারিশ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে দেওয়া ৫ দফা প্রস্তাব সামনে রেখে পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। এজন্য ৩০ নভেম্বরের মধ্যে একটি ‘জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ তৈরি করার কথা বলা হয়েছে। টার্মস অব রেফারেন্স (টিওআর) তৈরি হয়েছে। শিগগিরই আমাদের পররাষ্ট্র মন্ত্রী সে দেশে যাবেন। তার যাওয়ার পরেই সব চূড়ান্ত হবে। জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ ঠিক করবে কিভাবে কাজ করবে। মন্ত্রী বলেন, মিয়ানমার বার বার বলার চেষ্টা করেছে, যারা বাংলাদেশে এসেছে তারা বাংলাদেশের নাগরিক। আমরা এর জোরালো প্রতিবাদ করেছি, বলেছি সারা বিশ্বে ৩৫ কোটি মানুষ বাংলায় কথা বলে। তাহলে তারাও কি বাঙালি? যারা এসেছে তারা বাংলা ভাষা বোঝেও না, বাংলায় কথাও বলতে পারে না। তারা আরাকান ভাষায় কথা বলে। আর বাংলাদেশে আর্থ-সামাজিক অবস্থা এমন পর্যায়ে গেছে যে সেখানে যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তের জিরো লাইন এলাকায় এসে স্থলমাইন পুতে রাখা হয়েছে এ বিষয়ে মিয়ানমার সরকারের কাছে কিছু বলা হয়েছে কী না জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, আমরা বলেছি আন্তর্জাতিক রুল ভঙ্গ করে সীমান্তের জিরো লাইনে স্থলমাইন পুতে রাখা হয়েছে। তারা জানিয়েছেন, এটা দুষ্কৃতিকারীরা করেছে। তাদের সেনাবাহিনী ও তাদের পুলিশ সেটা পরিষ্কার করবে। মিয়ানমার সরকার কোনটাই অস্বীকার করেনি, মানা করেনি। তারা বলেছে তারা ফিরিয়ে নেবে। আমরা কোনো কিছুই নেগেটিভলি দেখি না। আমাদের একটাই কথা আমাদের ঘাড়ে যেহেতু পড়েছে আমরা এর সমাধান করবোই। তিনি বলেন, যারা এখানে এসেছে তারা সব হারিয়ে এসেছে। আমাদের এখানে ১ মিলিয়ন মিয়ানমারের নাগরিক এসেছে। সেখানে মাইলের পর মাইল ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। আমরা তাদের সেটা বলেছি। সু চি রোহিঙ্গাদের ‘রোহিঙ্গা হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন কি না? এর জবাবে মন্ত্রী বলেন, না, আমার কাছে এমন শব্দ আসেনি। আমরাও রোহিঙ্গা শব্দটি ব্যবহার করিনি। আমরা বলেছি তাদের নাগরিক তাদের ফিরিয়ে নিতে হবে। তারা বলেছেন নেবেন। মিয়ানমার সরকারের পক্ষ থেকে দুষ্কৃতিকারীদের কোনো তালিকা দেওয়া হয়েছে কি না জানতে চাইলে কামাল বলেন, একটা তালিকা দিয়েছে। কিন্তু নাম-ঠিকানাবিহীন এভাবে একটি নামের অর্ধ অক্ষর বা অর্ধেক শব্দ দিয়ে খুঁজে বের করা দুঃসাধ্য ব্যাপার। আমরা বলেছি বিস্তারিত দিতে। তারা বলেছে, ৮ আগস্ট ও ২৪ আগস্ট সেখানে কিছু দুষ্কৃতিকারী তাদের সেনাবাহিনী ও পুলিশের ওপর হামলা করেছে। আমরা আগেও নিন্দা করেছি, এখনও প্রতিবাদ করি। তাদের এও বলেছি, তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে না নিলে আন্তর্জাতিক জঙ্গিবাদের সঙ্গে এরা সম্পৃক্ত হতে পারে। এতে আমাদেরও সমস্যা, তাদেরও সমস্যা। তাই সেদেশে যাতে শান্তি ফিরিয়ে আসে, আবার আমরাও যাতে শান্তিতে থাকতে পারি সেই ব্যবস্থা করতে হবে। রোহিঙ্গার সঙ্কটের মধ্যে গত সোমবার মিয়ানমার সফরে যান কামাল। নে পি দোতে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার পাশাপাশি মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির সঙ্গেও কথা বলেন তিনি।

Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর