February 22, 2024, 5:51 am

সংবাদ শিরোনাম
ভোলায় ভাষা শহিদের প্রতি পুলিশ সুপারের শ্রদ্ধা নিবেদন বাংলাদেশ প্রেসক্লাব পীরগঞ্জ উপজেলার দ্বি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রামে ৪দিন ব্যাপী বইমেলার উদ্বোধন মাতৃভাষা শহীদের স্মরনে লক্ষ্মীপুরবাসী জগন্নাথপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন চিলমারীতে এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্রে প্রবেশ করতে না দেয়ায়, মোবাইল দিয়ে কর্মচারীর মাথা ফাটালেন উখিয়ায় নিখোঁজ জেলের মরদেহ উদ্ধার জমাজমি সংক্রান্ত বিরোধ, পটুয়াখালীতে মাছের ঘেরের বাঁধ কেটে দিয়েছে প্রতিপক্ষরা, ১০ লাখ টাকার ক্ষতি রংপুরে মোটর মালিক সমিতির নেতাকে লক্ষ্য করে গুলি, আটক ৩ শিমুলতলা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষকের আত্মহত্যা

পদ্মা সেতু চোখে পড়বে কাল

পদ্মা সেতু চোখে পড়বে কাল

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

 

বিশাল ক্রেন দিয়ে মাওয়া থেকে টেনে আনা হচ্ছে পদ্মা সেতুর একটি স্প্যান। বসানো হবে জাজিরা প্রান্তে পিয়ারের ওপর। ছবি : সংগৃহীতদৃশ্যমান হতে চলেছে পদ্মা সেতু। আর মাত্র এক দিন পর আগামীকাল শনিবার সেতুটির প্রথম স্প্যানটি বসানো হবে। মুন্সিগঞ্জে পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের মাওয়া কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে ধূসর রঙের এই স্প্যান নিয়ে যাওয়া হয়েছে জাজিরা প্রান্তে। এই স্প্যান বসানো হলে পুরো সেতুটি দেখতে কেমন হবে তা বুঝতে পারবে সাধারণ মানুষ। এমন আরও ৪১ টি স্প্যান বসানো হলে শেষ হবে পুরো সেতুর কাজ।

প্রথম দিকে স্প্যানের রং সোনালি হওয়ার কথা থাকলেও এখন তা ধূসর করা হয়েছে। ফলে পদ্মা সেতুটি দেখতে সোনালি রঙের না হয়ে ধূসর রঙের হবে।

পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের পরিচালক শফিকুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, শনিবার সকালে স্প্যানটি বসানো হবে। এ সময় উপস্থিত থাকবেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সেতু প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট কয়েকজন প্রকৌশলীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত রোববার মাওয়া থেকে ৭বি স্প্যানটি ক্রেনে করে জাজিরার দিকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। প্রায় ১৫০ মিটার স্প্যানটি আজ শুক্রবার ৩৫ নম্বর পিয়ারের সামনে ছিল। আবহাওয়া অনুকূল থাকলে শনিবার সময়মতো পিয়ারের ওপর বসানোর কাজ সম্পন্ন হবে এই স্প্যান। এটি জাজিরা প্রান্তে সেতুর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর পিয়ারে বসানো হবে।

পিয়ার প্রস্তুত। স্প্যানও প্রস্তুত। জাজিরা প্রান্তে পিয়ারটির ওপর বসানো হবে স্প্যান। এভাবেই তৈরি হবে স্বপ্নের পদ্মা সেতু। ছবি : সংগৃহীতপদ্মা সেতুর দৈর্ঘ্য ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার। ভায়াডাক্টসহ দৈর্ঘ্য প্রায় সাড়ে ৯ কিলোমিটার। দ্বিতল এই সেতুটি হবে স্টিলের। পদ্মা সেতুতে কংক্রিটের ৪২টি খুঁটি বা পিলার হবে। আর এসব খুঁটির নিচে ২৭২টি পাইল বসাতে হবে।

পদ্মা সেতুর নিচের তলার ভেতর দিয়ে চলবে রেল। আর যানবাহন ওপরে পিচঢালা পথ দিয়ে চলবে। সরকার ২০১৮ সালের নভেম্বরে কাজ শেষে সেতুতে যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

মূল সেতুর কাজ করছে চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি। আর নদীশাসনের কাজে নিয়োজিত আছে চীনের সিনোহাইড্রো করপোরেশন। পদ্মা সেতুর কাজ ৫ ভাগে ভাগ করা হয়েছে। মূল সেতু ও নদীশাসন হচ্ছে বড় দুটি কাজ। এর বাইরে দুই পারে সংযোগ সড়ক ও টোলপ্লাজা নির্মাণ এবং অফিস, বাসাসহ নির্মাণ অবকাঠামোর কাজ তিন ভাগে ভাগ করা হয়েছে। একটি সূত্রে জানা গেছে, পদ্মা সেতু প্রকল্পের এ পর্যন্ত ৪৭ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে।

সূত্র : প্রথম আলো

Facebook Comments Box
Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর