July 25, 2024, 9:47 am

সংবাদ শিরোনাম
বোরহানউদ্দিন থানা পুলিশের অভিযানে ১০ হাজার ইয়াবাসহ যুবক আটক পার্বতীপুরে নব-নির্বাচিত উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও ভাই চেয়ারম্যানদ্বয়ের সংবর্ধনা রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকা হতে জাল সার্টিফিকেট ও জাল সার্টিফিকেট তৈরীর সরঞ্জামাদিসহ ০২ জন’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ র‌্যাব-১০ এর অভিযানে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং এলাকা হতে ইয়াবাসহ ০১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কক্সবাজারে ভারী বৃষ্টিপাত পাহাড় ধ্বসে নারী-শিশু নিহত পীরগঞ্জে মসজিদের দোহাই সরকারি খাস জমির গাছ কর্তন পার্বতীপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা সিদ্দিক হোসেন এর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন দারুসসালাম লাফনাউট মাদ্রাসার দস্তারবন্দী নিবন্ধন ফরম বিতরণ শুরু পীরগঞ্জে নিখোঁজের একদিন পর শিশু’র লাশ উদ্ধার মাদক মামলায় ১৫ বছরের সাজাপ্রাপ্ত গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত দীর্ঘদিন পলাতক আসামী আলাউদ্দিন’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০

সমালোচনার ঝড় পশতু ভাষায় সাকিব-তামিমের টুইটে

সমালোচনার ঝড় পশতু ভাষায় সাকিব-তামিমের টুইটে

ডিটেকটিভ স্পোর্টস ডেস্ক

পাকিস্তানের ঘরোয়া ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি- টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট পিএসএলের আগামি আসরেও খেলতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের দুই ক্রিকেটতারকা সাকিব আল হাসান এবং তামিম ইকবাল। দুজনেই খেলবেন পেশওয়ার জালমির হয়ে। আগমী বছরের শুরুতে মাঠে গড়াবে এই টুর্নামেন্ট। কিন্তু তার আগেই পাকিস্তানের আঞ্চলিক ভাষায় টুইট করে সমালোচনার মুখে জাতীয় দলের এই দুই সতীর্থ!

পিএসএলের প্রচারণার অংশ হিসেবে পশতু ভাষায় টুইট করেছেন বাংলাদেশের দুই তারকা ক্রিকেটার। টুইটে দুজনেই পেশওয়ার জালমির মালিক জাভেদ আফ্রিদিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

সাকিব লিখেছেন, ‘নতুন দল নিয়ে আমি ভীষণ উত্তেজনা বোধ করছি। ইনশাল্লাহ আমরা আবারও জিতব। মাঠেই দেখা হবে।’

অন্যদিকে তামিম ইকবাল লিখেছেন, ‘দলে নেওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ জাভেদ আফ্রিদি। আশা করছি, সমর্থকদের ভালো কিছু উপহার দিতে পারব। ইনশাল্লাহ আমরাই জয়ী হব।’

বাংলাদেশের ক্রিকেটের এই দুই বড় তারকার এমন কর্মে ক্ষিপ্ত হয়েছেন বেশিরভাগ বাংলাদেশি ক্রিকেটপ্রেমী। সাকিব-তামিম কেন বাংলা ভাষার ব্যবহার না করে পাকিস্তানি স্থানীয় ভাষা ব্যবহার করে টুইট করলেন- এটা তাদের বক্তব্য। অনেকে বায়ান্নর মহান ভাষা আন্দোলনের প্রসঙ্গও টেনে এনেছেন। এই পাকিস্তানিরাই তো বাংলা ভাষাকে বাদ দিয়ে উর্দুকে রাষ্ট্রভাষা করতে চেয়েছিল।

তবে পশতু ভাষায় টুইট করে পেশওয়ার জালমির সমর্থকদের কাছ থেকে শুভেচ্ছা পেয়েছেন এই দুজন। আবার পাকিস্তানপন্থী বাংলাদেশি কিছু মানুষ ভাষা আন্দোলন এবং মুক্তিযুদ্ধের কথা ভুলে সাকিব-তামিমের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাতে বলেছেন। সাধারণত, সমর্থকদের সঙ্গে খেলোয়াড়দের আরও ঘনিষ্ঠ করতে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর উদ্যোগে সোশ্যাল সাইটে এমন প্রচারণা করে থাকেন ক্রিকেটাররা। এর আগে পিএসএলের একটি ম্যাচ শেষে তামিমকে উর্দুতে প্রশ্ন জিজ্ঞেস করে সমালোচিত হয়েছিলেন রমিজ রাজা। টুইটার।

Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর