May 28, 2024, 7:41 pm

সংবাদ শিরোনাম
আদমদীঘির ধান শরিয়তপুরে উদ্ধার; গ্রেপ্তার-২ অবৈধভাবে চাঁদা উত্তোলনকালে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকা হতে ০৬ জন পরিবহন চাঁদাবাজকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ মুন্সিগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান এলাকা হতে গাঁজা ও বিদেশী পিস্তলসহ কুখ্যাত অস্ত্রধারী মাদক ব্যবসায়ী সাগর’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বৈদ্যুতিক খুঁটির সাথে ধাক্কায় চালকের মৃত্যু ঘূর্ণিঝড় রেমাল এর প্রভাবে উপকুলের সতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত কুড়িগ্রামে বেবী তরমুজের চাষে তিন মাসে আয় দেড় লাখ টাকা মাঝরাত্রে প্রবাসীর ঘরে ঢুকে স্ত্রীও মা কে ছুরি মেরে পালালো দুর্বৃত্তরা বগুড়ার শিবগঞ্জে জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের কমিটি গঠন: এমদাদুল আহবায়ক রবি সদস্য সচিব গাইবান্ধা প্রেসক্লাব’র কমিটি গঠিত প্রধানমন্ত্রী হস্তক্ষেপ কামনা, বাগাতি পাড়ার ভূমিহীন রাবেয়া বেগমের

স্মার্টকার্ড তৈরিতে খরচ কমানের উদ্যোগ

স্মার্টকার্ড তৈরিতে খরচ কমানের উদ্যোগ

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

 


নির্বাচন কমিশনের (ইসি) জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগ (এনআইডি) স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র (স্মার্ট কার্ড) তৈরিতে ব্যয় সংকোচন নীতি বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গৃহীত নীতি বাস্তবায়িত হলে মোট খরচ থেকে ৫০ কোটি টাকা সাশ্রয় হবে। ইসির আইডেন্টিফিকেশন সিস্টেম ফর এ্যানহান্সড অ্যাক্সেস টু সার্ভিস (আইডিয়া) প্রকল্প কর্তৃপক্ষ এ সংক্রান্ত প্রস্তাবনার খসড়া তৈরির কাজ শুরু করেছে। সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, প্রস্তাবনা চূড়ান্ত করে শিগগিরই নির্বাচন কমিশনের অনুমোদনের জন্য উত্থাপন করবে এনআইডি। এর আগে কমিশনের মৌখিক নির্দেশনা নিয়ে এ কাজ শুরু হয়েছে। ইসি সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, ব্যয় সংকোচন নীতির কারণে স্মার্টকার্ডের আকার কিংবা আকৃতিতে কোনো ধরনের পরিবর্তন হবে না। ভোটার নাগরিকের তথ্যও থাকবে অবিকল। কেবলমাত্র কার্ডটির দীর্ঘস্থায়ীত্বের জন্য যে উন্নতমানের লেমিনেটিং পেপার ব্যবহার হতো, এখন থেকে আরেকটু কম-মূল্যের (লেমিনেটেড) পেপারে এই কার্ডটি মোড়ানো থাকবে। একইভাবে বর্তমানে স্মার্টকার্ড পরিচয়পত্রটির সাথে একটি সুদৃশ্য খাম এবং খামের অভ্যন্তরে কার্ডটি সংরক্ষণ ও ব্যবহারের নির্দেশিকা সংবলিত একটি চিরকুট থাকত; আগামীতে সেগুলো বাদ দেয়া হচ্ছে। তাছাড়া প্রতিটি বিতরণ কেন্দ্রে ২৫০টি কার্ডের জন্য আলাদা আলাদা বক্স নং দিয়ে সেগুলো সংরক্ষণ করা হতো; তার জন্য জনবল এবং জায়গাও বেশি লাগত।
সূত্র জানায়, অপরিহার্য নয় এমন উপাদান স্মার্ট পরিচয়পত্র থেকে বাদ দেয়া হলে কোনো ক্ষতির শঙ্কা নেই। বরং সময়, জনবল এবং ব্যয় কমবে। কারণ ইতোমধ্যে বিতরণ হওয়া সুদৃশ্য খামে মোড়ানো স্মার্টকার্ডটি সংশ্লিষ্ট ভোটার নাগরিক পাওয়ার পর খামটি সংরক্ষণে রেখেছে কিংবা নির্দেশিকাটি পড়ে দেখেছে-এমন কোনো দৃশ্য তাদের বিতরণকারী কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিতে আসেনি। উল্টো কার্ডটি হাতে নিয়েই খামটি ফেলে দিয়েছে খোলা ময়দানে। অথচ একটি খামের বিপরীতে ব্যয় হয়েছে ৬-৭ টাকা; ব্যয় হয়েছে নির্দেশিকার পেছনেও। অথচ ফ্রান্সের ওবারর্থু কোম্পানির সাথে গত জুনে চুক্তির পরিসমাপ্তিতে গত ২৭ আগস্ট থেকে নিজস্ব ব্যবস্থায় স্মার্টকার্ড মুদ্রণ হচ্ছে। আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত বিশ্বব্যাংকের সাথে চুক্তি অনুযায়ী তাদের বিনিয়োগ করা অর্থে মুদ্রণ ও বিতরণ চলবে স্মার্টকার্ডের। আসছে নতুন বছর অর্থাৎ জানুয়ারি মাস থেকে সরকারি অর্থায়নে প্রযুক্তিনির্ভর কার্ড ভোটার নাগরিকদের হাতে পৌঁছে দেবে নির্বাচন কমিশন। এর আগে সরকারের অর্থের অপচয় ও ব্যয় সংকোচনে নানামুখী পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে আইডিয়া সংশ্লিষ্টরা। নির্বাচন কমিশনকে ডেমোর মাধ্যমে তাদের ব্যয় সংকোচনের পুরো তথ্য-উপাত্ত দেখানো হবে।
এ প্রসঙ্গে আইডিয়া প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক ও এইআইডি উইংয়ের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, স্মার্টকাডের্রর ব্যয় সংকোচনে একটা পর্যালোচনা চলছে। পর্যালোচনার মধ্যে কার্ডের খাম ও নির্দেশনা  রাখা হচ্ছে না। এতেই ৪০ থেকে ৫০ কোটি টাকা সাশ্রয় হচ্ছে। তবে প্রস্তাবটি কমিশনে দেয়া হবে আর তাদের সাথে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর