February 22, 2024, 5:07 pm

সংবাদ শিরোনাম
ভোলায় ভাষা শহিদের প্রতি পুলিশ সুপারের শ্রদ্ধা নিবেদন বাংলাদেশ প্রেসক্লাব পীরগঞ্জ উপজেলার দ্বি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রামে ৪দিন ব্যাপী বইমেলার উদ্বোধন মাতৃভাষা শহীদের স্মরনে লক্ষ্মীপুরবাসী জগন্নাথপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন চিলমারীতে এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্রে প্রবেশ করতে না দেয়ায়, মোবাইল দিয়ে কর্মচারীর মাথা ফাটালেন উখিয়ায় নিখোঁজ জেলের মরদেহ উদ্ধার জমাজমি সংক্রান্ত বিরোধ, পটুয়াখালীতে মাছের ঘেরের বাঁধ কেটে দিয়েছে প্রতিপক্ষরা, ১০ লাখ টাকার ক্ষতি রংপুরে মোটর মালিক সমিতির নেতাকে লক্ষ্য করে গুলি, আটক ৩ শিমুলতলা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষকের আত্মহত্যা

এ ছবিটার একটা আর্কাইভাল ভ্যালু আছে: জয়া

এ ছবিটার একটা আর্কাইভাল ভ্যালু আছে: জয়া

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

কলকাতা থেকে এসে নিজের হলে দর্শকের সঙ্গে বসে নিজের অভিনীত খাঁচা চলচ্চিত্রটি দেখলেন জয়া। একবছর পর দেশের বড়পর্দায় জয়ার ছবি। ছিলেন কলকাতায়। সেখানকার পূজা উৎসব নিয়ে খুব ব্যস্ত সময় কাটছে তার। এরই ফাঁকে দুদিনের সফরে ঢাকায় এলেন। দেশভাগের ওপর নির্মিত আকরাম খান পরিচালিত খাঁচা চলচ্চিত্রটির মুক্তির দিন তাই নায়িকাও হাজির সিনেমা হলে।

সিনেমা হল বলতে, ঢাকার একমাত্র স্টার সিনেপ্লেক্সেই মুক্তি পেয়েছে সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ছবিটি। প্রথম দিনেই হাউসফুল। সিনেমা শুরুর দশ মিনিট পর এসে তো জয়া নিজেই ঢুকতে পারছিলেন না হলে। শেষমেস জানলেন, তার জন্য আগেই টিকেট রাখা আছে।

বড়পর্দায় নিজের ছবি দেখার প্রতিক্রিয়ায় জয়া যেন একটু সিরিয়াস। খাঁচা চলচ্চিত্রটিকে নিছক বিনোদনের বলে ভাবছেন না তিনি। দেশভাগের প্রেক্ষাপটে নির্মিত ছবি বলে এর ঐতিহাসিকমূল্যটাই তার কাছে অমূল্য হয়ে ধরা দিচ্ছে।

জয়া বলেন, নিজের যে কোনো ছবি মুক্তি পাওয়াই আমার কাছে আনন্দের। খাঁচা হয়তো সব দর্শকের জন্য না, এটা একটু সংবেদনশীল দর্শকের জন্য। সেইসব দর্শকের জন্য যারা দিনের শেষে কিছু নিয়ে বাড়ি ফিরতে চায়। আমি ব্যাসিকেলি এনজয় করেছি এমন একটা ছবিতে সম্পৃক্ত হতে পেরে। দেশভাগ নিয়ে খুব বেশি ছবিতো তৈরি হয়নি, এ ছবিটার একটা আর্কাইভাল ভ্যালু আছে। শুধু বিনোদিত হওয়ার জন্য কিন্তু এ ছবিটি নয়। আজীবন এর একটা মূল্য আছে।

নিজের ভালো লাগাটাও শেয়ার করলেন-দর্শকের রেসপন্স খুব ভালো পেয়েছি। আমিতো ঢুকতেই পারছিলাম না। দশ মিনিট পর গিয়েছিলাম। হাউসফুল ছিলো। পুরো সময়টাই দর্শক হলে ছিলেন, এনজয় করেছেন। এটা একটা ভালো কিছুরই ইঙ্গিত দেয়। আমার কাছে খুব ভালো লেগেছে, বাকিটা দর্শকের ওপর নির্ভর করবে।

জয়া এখন আর শুধু বাংলাদেশের নেই। কলকাতায় চলছে পূজার উৎসব। সে উৎসবে মিলে নানা দায়িত্বও পালন করতে হচ্ছে তাকে। গতবার কলকাতা ২৪ঘন্টায় পূজার অনুষ্ঠানের বিচারক ছিলেন তিনি। এবার কলকাতার সংবাদ প্রতিদিনের পূজা পরিক্রমায় বিচারক হিসেবে থাকছেন তিনি। এছাড়া নাকতলা পূজা মন্ডপের ব্র্যান্ড এম্বেসেডর হিসেবেও থাকছেন তিনি।

Facebook Comments Box
Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর