February 24, 2024, 2:47 am

সংবাদ শিরোনাম
রাজধানীর ধানমন্ডিতে পুলিশের অভিযানে ২৯০ বোতল বিদেশি মদ উদ্ধার’ এক নারী’সহ গ্রেফতার-২ এবারে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে এলো ৫০ মেট্রিকটন নারিকেল জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন সরিষাবাড়ীতে ফসলের বৃদ্ধিকরণে কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত রংপুরে এসএসসির প্রশ্নপত্র ফাঁস, শিক্ষকের কারাদণ্ড ইসলামপুরে অতি দরিদ্র পরিবারের জীবনযাত্রার মান পরিবর্তনে গ্র্যাজুয়েশন সভা অনুষ্ঠিত উলিপুরে সংবাদ প্রচারের পর দোকান ঘর সরিয়ে নিতে নোটিশ দিলেন সহকারী কমিশনার ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানালেন ডিএমপি কমিশনার গংগাচড়া স্মার্ট প্রেসক্লাবের সভাপতি আজমীর, সাধারণ সম্পাদক সাগর কুড়িগ্রামের উলিপুরে ৬ জুয়াড়ী গ্রেফতার

ড্রোন বৈধতা পাচ্ছে ভারতে

ড্রোন বৈধতা পাচ্ছে ভারতে
ডিটেকটিভ প্রযুক্তি ডেস্ক

শীঘ্রই ভারতে বৈধতা পেতে যাচ্ছে ড্রোন। বুধবার এর জন্য খসড়া আইন চালু করেছে দেশটির সরকার।
এই আইনের আওতায় সাধারণ মানুষের ড্রোন ব্যবহার ছাড়াও বাণিজ্যিকভাবে ‘আনম্যানড অ্যারিয়াল ভেহিকলস’ দিয়ে ফটোগ্রাফি, বাড়িতে পণ্য সরবরাহ এবং যাত্রী পরিবহন করা যাবে বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আইএএনএস।
সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা করেই খসড়া আইন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির সিভিল এভিয়েশন মন্ত্রী আশোক গাজাপাথি রাজু। মন্তব্য ও পরামর্শ পেতে এক মাসের জন্য জনগণের মধ্যে এটি চালু করা হচ্ছে। এরপরই নীতিমালা চূড়ান্ত করা হবে।
সিভিল এভিয়েশন সচিব আর এন চৌবে বলেন, “ডিসম্বরের ৩১ তারিখের মধ্যে আমরা ড্রোন ব্যবহারে চূড়ান্ত নীতিমালা আনার মতো অবস্থানে থাকবো।”
ভারতীয় সিভিল এভিয়েশনের মহাপরিচালক (ডিজিসিএ)-এর খসড়া নীতি অনুযায়ী সর্বোচ্চ ওজন বহনের ওপর ভিত্তি করে ড্রোনগুলোকে পাঁচটি শ্রেণিতে ভাগ করা হয়েছে। ২৫০ গ্রাম পর্যন্ত ন্যানো, ২৫১ গ্রাম থেকে দুই কেজি পর্যন্ত মাইক্রো, দুই থেকে ২৫ কেজি পর্যন্ত মিনি, ২৫ থেকে ১৫০ কেজি পর্যন্ত ক্ষুদ্র এবং ১৫০ কেজির ওপর বৃহৎ ড্রোন।
“ন্যানো শ্রেণি এবং যেগুলো সরকারি নিরাপত্তা সংস্থা ব্যবহার করে থাকে সেগুলো ছাড়া অন্যান্য বাণিজ্যিক শ্রেণির ড্রোন নিবন্ধন করবে ডিজিসিএ, তাদেরকে একটি ‘ইউনিক আইডেনটিফিকেশন নাম্বার’ দেওয়া হবে,” বলেন চৌবে।
সিভিল এভিয়েশন মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, মিনি এবং তার ওপরের শ্রেণির ড্রোনের ক্ষেত্রে আনম্যানড এয়ারক্রাফট অপারেটর পারমিট দরকার হবে। আর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ২ কেজি পর্যন্ত ড্রোন মডেলগুলো সর্বোচ্চ ২০০ ফুট পর্যন্ত উচ্চতায় ওড়ানো যাবে, এতে কোনো অনুমোদন বা শণাক্তকারী নাম্বার দরকার হবে না।
ড্রোনগুলো যারা রিমোট দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করবেন তাদেরকে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ নিতে হবে। তবে ন্যানো ও মাইক্রো শ্রেণির ক্ষেত্রে এটি প্রয়োজন নেই।
খসড়া আইনে নো ফ্লাই জোনে ড্রোন ওড়ানোর ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা রাখা হয়েছে। ফলে এয়ারপোর্টের পাঁচ কিলোমিটারের মধ্যে,আন্তর্জাতিক সীমন্তের ৫০ কিলোমিটার, বন্দর এলাকার ৫০০ মিটার এবং দিল্লির ভিজেই চৌকের পাঁচ কিলোমিটারের মধ্যে ড্রোন ওড়ানো যাবে না।
এছাড়া ঘনবসতি পূর্ণ এলাকায় অনুমোদন ছাড়া ড্রোন ওড়ানো যাবে না বলে বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

Facebook Comments Box
Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর