June 16, 2024, 7:06 pm

সংবাদ শিরোনাম
সিসিটিভির আওতায় উলিপুরঃ সম্মানিত নাগরিকদের নিরাপত্তায় পুলিশের এই প্রচেষ্টা সরিষাবাড়ীতে ৪ হাজার ব্যক্তির মাঝে এমপির চাল বিতরণ চিলমারীতে পৈ‌ত্রিক সম্প‌তি নি‌য়ে বি‌রো‌ধের জের ধ‌রে প্রায় ১৪ বছরের পুরোনো কবর ভেঙে ফেলার অভিযোগ গাজীপুর কালিয়াকৈর চান্দ্রায় ঈদ যাত্রার যাত্রীদের দুর্ভোগ কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এসেছে বোতলনোজ প্রজাতির মৃত ডলফিন উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে আরসার গান কমান্ডার গ্রেফতার ফরিদপুরের নগরকান্দার চাঞ্চল্যকর “ক্লুলেস ডাকাতি” ঘটনার মূলহোতা দুর্ধর্ষ ডাকাত সর্দার রবিজুল শেখ’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ রংপুরের পীরগঞ্জে ইয়াবা, জুয়ারী,ও ওয়ারেন্টের আসামী সহ ৮জনকে আটক করে পীরগঞ্জ থানা পুলিশ ভূমি সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে জনসচেতনতা মূলক আলোচনা সভা জৈন্তাপুরে চিকনাগুল বাজারে অবৈধ পশুর হাট, সরকার হারাচ্ছে কোটি টাকার রাজস্ব

মিঠাপুকুরে প্রভাবশালীদের দাপটে কোনঠাসা একটি পরিবার

মিঠাপুকুর (রংপুর) প্রতিনিধিঃ

প্রতিকি ছবি

মিঠাপুকুরে প্রভাবশালীদের দাপটে ১০ দিনেরও বেশি সময় ধরে কোনঠাসা হয়ে পড়েছে একটি পরিবার। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ঈদুল আযহার দিন থেকে ওই পরিবারটি সামাজিক কোন কর্মকান্ডে অংশগ্রহন করতে পারছেনা বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এমনকি প্রভাবশালীদের দাপটে ঈদের কোরবানী এবং মসজিদে নামাযও আদায় করতে বাধার সম্মুখিন হয়েছে নিরীহ পরিবারের সদস্যরা। এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন মোশারফ হোসেন নামে এক ব্যক্তি।
অভিযোগ এবং নির্যাতিত পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের রুহিয়া বানিনাথপুর গ্রামের মো. খায়রুল ইসলাম ও তার ছেলে মোশারফ হোসেনের সাথে একই গ্রামের মোকছেদ আলী, আতিয়ার রহমান ও মতিয়ার রহমানের সাথে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শত্রুতা চলে আসছে। মোশারফ হোসেন জানান, তারা আমার পরিবারের ওপর নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। এর জের ধরে গত ঈদুল আযহার দিনে মোশারফ হোসেনের বাড়িতে গরু কোরবানী দিতে মৌলভীকে বাধা দেন মোকছেদ আলী। পরে অন্য মৌলভীকে ডেকে এনে কোরবানী দেই।’ মোশারফ হোসেন অভিযোগ করে আরও বলেন, ঈদের পরের শুক্রবার বাবাকে নিয়ে জুমার নামায আদায় করার জন্য মসজিদে যাই। এসময় মোকছেদ ও তার লোকজন আমাদের ওপর চড়াও হয়ে ওঠে। তারা আমাদেরকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে মসজিদ থেকে বের করে দেওয়ার চেষ্টা করে।’ একটি ধর্ষন মামলার স্বাক্ষী হওয়ার কারণে প্রভাবশালীরা অত্যচারের মাত্রা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ করেন মোশারফ হোসেন। গ্রামবাসি সূত্রে জানা গেছে, মোকছেদ আলী গং খারাপ প্রকৃতির মানুষ। তারা ধর্ষণ মামলার আসামীসহ বিভিন্ন অসামাজিক কর্মকান্ডে লিপ্ত। গ্রামের মানুষকে হয়রানী করাই তাদের কাজ। কলহ-বিবাদ সৃষ্টি করে মামলা-মোকদ্দমা দায়ের করে থাকে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন গ্রামবাসী বলেন, তাদের এসব কর্মকান্ডে গ্রামের কেউ প্রতিবাদ করলে নানা ভয়ভীতি ও হুমকী-ধামকী দেওয়া হয়। ভয়ে গ্রামের কেউ প্রভাবশালীদের অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে সাহস পায়না। স্থানীয় জামে মসজিদের ইমাম মো. জিকরুল ইসলাম বলেন, ‘মসজিদে আরবী খুতবা দেওয়ার সময় কিছু লোকজন মসজিদের ভেতর বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করেছিল।’ সেরাজুল ইসলাম নামে একজন অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক বলেন, মোকছেদ আলী ও তার লোকজন খুবই উশৃঙ্খল ও বদমেজাজী। তাদের কারণে গ্রামে অশান্তি সৃষ্টি হচ্ছে। তারা সাধারন মানুষের ওপর অন্যায়-অত্যাচার চালাচ্ছে। এটা খুবই অন্যায়, মেনে নেওয়া যায়না।’ এ ব্যাপারে মোকছেদ আলীর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি দম্ভোক্তি প্রকাশ করে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি। মোকছেদ আলী গংদের অত্যাচের অতিষ্ঠ মোশারফ হোসেন থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন। মিঠাপুকুর থানার ওসি জাফর আলী  বিশ্বাস বলেন, ঘটনাটি তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/২০ আগস্ট ২০১৯/ইকবাল

Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর