May 22, 2024, 10:39 am

সংবাদ শিরোনাম
পীরগাছায় আনসার দলনেতা আনিসুর রহমানের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতিতে ভুক্তভোগীদের ক্ষোভ কক্সবাজারে জোড়া খুনের মামলার আসামী ৬ জন কুড়িগ্রামে জাল ভোট দিতে এসে ধরা খেলো রিকশাওয়ালা পটুয়াখালীতে মন্দিরে ডুকে ৩টি প্রতিমা ভাংচুর করেছে দুর্বৃত্বরা পটুয়াখালীতে প্রাকৃতিক দুর্যোগ বিষয়ক সচেতনতামুলক কর্মশালা অনুষ্ঠিত দৈনিক নবচেতনা পত্রিকার ৩৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপিত চিলমারীতে বিধি বহির্ভূতভাবে শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচন স্থগিতের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন রামু উপজেলা বিএনপির তিন নেতা বহিষ্কার সুন্দরগঞ্জে দিনব্যাপী কৃষক প্রশিক্ষণ দিনাজপুরে চতুর্থ পর্যায়ে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩ উপজেলায় প্রতিক বরাদ্দ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

সুদিন অপেক্ষা করছে সামনে

সুদিন অপেক্ষা করছে সামনে

ডিটেকটিভ বিনোদন ডেস্ক

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ও অভিনেতা তাহসান খান। ক্যারিয়ারের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত ধারাবাহিকভাবে জনপ্রিয় সব গান উপহার দিয়ে আসছেন তিনি। নিজের ভিন্নধর্মী গায়কির মাধ্যমে আলাদা একটি শ্রোতামহল তৈরি করেছেন অনেক আগেই। গানের বাইরে গত কয়েক বছরে অভিনেতা হিসেবেও অন্যতম শীর্ষদের তালিকায় চলে এসেছেন তাহসান। বিশেষ উৎসবে দর্শকদের কাছে তাহসানের নাটক কিংবা টেলিছবি মানেই নতুন কিছু। মূলত উৎসবগুলোতে তাহসানের নাটকগুলোই থাকে সর্বাধিক দর্শকপ্রিয়তায়।

শুধু তাই নয়, উপস্থাপক হিসেবেও এ শিল্পীর আলাদা একটি গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। বিশেষ করে ‘দীপিকা লাইভ ইন ঢাকা’ অনুষ্ঠানে দুর্দান্ত উপস্থাপনা করেছিলেন তাহসান। তার প্রশংসা করেছেন খোদ দীপিকাও। তবে চলতি বছরের মাঝামাঝি সময় থেকে অভিনয় অনেকটাই কমিয়ে দিয়েছেন এ তারকা। মনোনিবেশ করেছেন গানের প্রতি। তারই ধারাবাহিকতায় ‘অভিমান আমার’ শীর্ষক অ্যালবামটি গেল ঈদে প্রকাশ হয় তার। সব মিলিয়ে বর্তমান দিনকাল কেমন চলছে? উত্তরে তাহসান বলেন, বেশ ভালো। শ্রোতা-দর্শকদের ভালোবাসা প্রতিনিয়ত পেলে কি আর খারাপ থাকা যায়। তাই আমিও সব সময় ভালোই থাকি। বর্তমান ব্যস্ততা কি নিয়ে? তাহসান বলেন, এখন বেশ কিছু নতুন গান নিয়ে ব্যস্ত সময় যাচ্ছে। নিজের মনের মতো করে নিয়মিত গানের কাজ করছি। পাশাপাশি অভিনয়ের প্রস্তাবও রয়েছে। ব্যাটে বলে মিললে হয়তো করা হবে। ঈদে আপনার একক অ্যালবাম ‘অভিমান আমার’ প্রকাশ হয়েছে। সাড়া কেমন মিলছে? তাহসান বলেন, খুব ভালো সাড়া পাচ্ছি। কারণ এ অ্যালবামটির মাধ্যমে অনেকদিন পর একক অ্যালবাম প্রকাশ করলাম। আমার ভক্ত-শ্রোতারা এ অ্যালবামের জন্য অনেকটা সময় অপেক্ষা করেছেন। আমি নিজেও সময় দিয়েছি অনেক। চলতি বছরের মাঝামাঝি থেকে টানা কাজ করে শেষ করেছি অ্যালবামটি। এ অ্যালবামে একটি ছাড়া সব গানের কথা আমার। ‘বুড়ো শালিক’ শীর্ষক একটি গান যৌথভাবে লিখেছে ফাজবীর তাজ। আর পাঁচটি গান আমার সুর করা। বাকিগুলো সাজিদ সরকার করেছে। জিপিতে অ্যালবামটি প্রকাশ হয়েছে। সিডি চয়েজের ব্যানারে ইউটিউবে গানগুলো একটি একটি করে প্রকাশ হচ্ছে। অনেক ভালো সাড়া পাচ্ছি। ‘বুড়ো শালিক’ এবং ‘অভিমান আমার’ গান দুটির সাড়াই বেশি পাচ্ছি এখন। এখান থেকে মিউজিক ভিডিও আরো করার কথা রয়েছে। আর গানগুলোকেও সময় দিতে হবে। সময়ের সঙ্গে গানগুলো ধীরে ধীরে শ্রোতাদের ভালো লাগবে বলে আমার বিশ্বাস। এখনতো সবাই সিঙ্গেল করছে। এই সময়ে আপনি পূর্ণ অ্যালবাম প্রকাশ করলেন। এটা কেন? তাহসান বলেন, আসলে সিঙ্গেল আর অ্যালবামের আবেদন এক না। একটি অ্যালবাম একজন শিল্পীর পূর্ণ পরিচয় বহন করে। আর সিঙ্গেল হচ্ছে একটি গান। তার মানে একটি গানই আমাকে বাণিজ্যিক বিষয়টি মাথায় রেখে করতে হবে। এখানে নিজেকে প্রকাশের বিশেষ সুযোগ নেই। আর অ্যালবামে আমি বেশ কিছু গান করতে পারছি। একেকটি গান একেক রকম হচ্ছে। অ্যালবামে নিজেকে ভাঙ্গা গড়ার সুযোগ থাকে। তাই আমি সব সময়ই অ্যালবামের পক্ষে। নিজের চিন্তা-ভাবনারও প্রতিফলন ঘটানো যায় পূর্ণ অ্যালবামের মাধ্যমে। আসলে আমি কোনো সময়ই চাইনি আমার গান চটজলদি জনপ্রিয়তা পাক। আমি চাই ধীরে ধীরে আমার গান শ্রোতাদের হৃদয়ে জায়গা করে নিক। এই সময়ে অডিও ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা কেমন দেখছেন? উত্তরে তাহসান বলেন, এখন অবস্থা ভালো। গানের ডিজিটাল মার্কেটিং হচ্ছে। মানুষ ডিজিটালি গান শুনছে। আর একজন শিল্পীও নিজের গানের স্বত্ব নিজের কাছে রাখতে পারছে। এটা একটা ইতিবাচক দিক। তবে সামনে বিষয়গুলো আরো বেশি পরিষ্কার হবে। আসলে সারা বিশ্বেই এখন ডিজিটালি গান প্রকাশ হচ্ছে। ইউটিউব জনপ্রিয় মাধ্যম গান শোনার। তাই সময় ও প্রযুক্তিকে অস্বীকার করা যাবে না। আমাদেরও এই পথেই এগিয়ে যেতে হবে। আমার মনে হয় সামনে সুদিন অপেক্ষা করছে সংগীতশিল্পের জন্য।

Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর