June 22, 2024, 12:40 am

সংবাদ শিরোনাম
সিসিটিভির আওতায় উলিপুরঃ সম্মানিত নাগরিকদের নিরাপত্তায় পুলিশের এই প্রচেষ্টা সরিষাবাড়ীতে ৪ হাজার ব্যক্তির মাঝে এমপির চাল বিতরণ চিলমারীতে পৈ‌ত্রিক সম্প‌তি নি‌য়ে বি‌রো‌ধের জের ধ‌রে প্রায় ১৪ বছরের পুরোনো কবর ভেঙে ফেলার অভিযোগ গাজীপুর কালিয়াকৈর চান্দ্রায় ঈদ যাত্রার যাত্রীদের দুর্ভোগ কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এসেছে বোতলনোজ প্রজাতির মৃত ডলফিন উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে আরসার গান কমান্ডার গ্রেফতার ফরিদপুরের নগরকান্দার চাঞ্চল্যকর “ক্লুলেস ডাকাতি” ঘটনার মূলহোতা দুর্ধর্ষ ডাকাত সর্দার রবিজুল শেখ’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ রংপুরের পীরগঞ্জে ইয়াবা, জুয়ারী,ও ওয়ারেন্টের আসামী সহ ৮জনকে আটক করে পীরগঞ্জ থানা পুলিশ ভূমি সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে জনসচেতনতা মূলক আলোচনা সভা জৈন্তাপুরে চিকনাগুল বাজারে অবৈধ পশুর হাট, সরকার হারাচ্ছে কোটি টাকার রাজস্ব

ভারতে প্রবল বৃষ্টিতে একদিনেই নিহত ৪২

ভারতে প্রবল বৃষ্টিতে একদিনেই নিহত ৪২

ডিটেকটিভ আন্তর্জাতিক ডেস্ক

একটানা প্রবল বৃষ্টিপাতে বিপর্যস্ত ভারতের হিমাচল প্রদেশ ও উত্তরাখন্ড রাজ্য। রোববার থেকে  সোমবার পযর্ন্ত ২৪ ঘণ্টায় প্রবল বৃষ্টিপাতজনিত কারণে হিমাচল প্রদেশে নিহত হয়েছেন অন্তত ১৮ জন। তাঁদের মধ্যে আট জনের মৃত্যু হয়েছে বৃষ্টির কারণে তৈরি বন্যায়। প্রদশটির কুলু, সিরমাউর ও ছাম্বা এলাকায় দুজন নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। এ ছাড়া উনা ও লাহুল-স্পিতি জেলা থেকেও কয়েকজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এদিকে উত্তরাখন্ড রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টি ও ভুমিধসে নিহত হয়েছে ২৪ জন। দুটি রাজ্যেই উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে পুলিশ প্রশাসন ও জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী।টানা বৃষ্টিতে হিমাচল প্রদেশে ধস নেমে চন্ডিগড়-মানালি ও সিমলা-কিন্নাউর জাতীয় মহাসড়কসহ একাধিক রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সরকারি হিসাব মতে, হিমাচল প্রদেশের ২৫০টিরও বেশি রাস্তাঘাটে পানি জমে যাওয়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙে পড়েছে। টানা বৃষ্টিতে বানভাসি হয়েছে প্রদেশটির বিভিন্ন এলাকা। এসব কারণে আজ সোমবার কুলু ও সিমলার সব শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।হিমাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী জয়রাম ঠাকুর স্থানীয় বাসিন্দা ও হিমাচলে ঘুরতে আসা পর্যটকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন। একইসঙ্গে পাহাড়ি নদীতে হড়পা বানের আশঙ্কা থাকায় পর্যটকদের নদী তীরবর্তী এলাকায় না যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।এরই মধ্যে ভারি বর্ষণে হিমাচল প্রদেশের ৪৯০ কোটি রুপির ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে। মান্ডি, হামিরপুর ও কাংড়া জেলার বিভিন্ন এলাকা পানিবন্দি রয়েছে।হিমাচল প্রদেশের পাশাপাশি উত্তরাখন্ড রাজ্যেও জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। বিভিন্ন এলাকায় তৈরি হয়েছে বন্যা। এই দুই রাজ্যের বিভিন্ন নদীর পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে বয়ে চলছে। দুদিন ধরে টানা বৃষ্টিতে উত্তরাখন্ডের পাড়ুই, দেহরাদুন, পিথোরগড়সহ বিভিন্ন এলাকায় বন্যা পরিস্থিতি ভয়ংকর আকার নিয়েছে। দেহরাদুন ও ঋষিকেশের বহু জায়গা পানিবন্দি রয়েছে। পুরালা বাইরাগড় এলাকায় পানিবন্দি রয়েছেন অন্তত ২৫০ জন মানুষ। ঋষিকেশের রামখুলায় বিপৎসীমার কাছাকাছি বইছে গঙ্গার পানি। নদী তীরবর্তী এলাকা থেকে বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কাজ করছে প্রশাসন।  এরই মধ্যে উত্তরাখন্ড ও হিমাচল প্রদেশে বৃষ্টিজনিত কারণে নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর