June 20, 2024, 12:06 am

সংবাদ শিরোনাম
সিসিটিভির আওতায় উলিপুরঃ সম্মানিত নাগরিকদের নিরাপত্তায় পুলিশের এই প্রচেষ্টা সরিষাবাড়ীতে ৪ হাজার ব্যক্তির মাঝে এমপির চাল বিতরণ চিলমারীতে পৈ‌ত্রিক সম্প‌তি নি‌য়ে বি‌রো‌ধের জের ধ‌রে প্রায় ১৪ বছরের পুরোনো কবর ভেঙে ফেলার অভিযোগ গাজীপুর কালিয়াকৈর চান্দ্রায় ঈদ যাত্রার যাত্রীদের দুর্ভোগ কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এসেছে বোতলনোজ প্রজাতির মৃত ডলফিন উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে আরসার গান কমান্ডার গ্রেফতার ফরিদপুরের নগরকান্দার চাঞ্চল্যকর “ক্লুলেস ডাকাতি” ঘটনার মূলহোতা দুর্ধর্ষ ডাকাত সর্দার রবিজুল শেখ’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ রংপুরের পীরগঞ্জে ইয়াবা, জুয়ারী,ও ওয়ারেন্টের আসামী সহ ৮জনকে আটক করে পীরগঞ্জ থানা পুলিশ ভূমি সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে জনসচেতনতা মূলক আলোচনা সভা জৈন্তাপুরে চিকনাগুল বাজারে অবৈধ পশুর হাট, সরকার হারাচ্ছে কোটি টাকার রাজস্ব

দেশের ৬৩ জেলায় ছড়িয়েছে ডেঙ্গু

দেশের ৬৩ জেলায় ছড়িয়েছে ডেঙ্গু

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

দেশের ৬৪ জেলার মধ্যে ৬৩টিতেই ডেঙ্গু ছড়িয়ে পড়েছে। স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য বলছে, শুধু নেত্রকোনা ছাড়া বাকি সব জেলায় ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। সরকারি এই পরিসংখ্যান সেল বলছে, গত ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ জুলাই (গতকাল বুধবার) পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ১৭ হাজার ১৮৩। আর প্রাণঘাতী এ রোগে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১৪ জন। যদিও বেসরকারি হিসাবে এ সংখ্যা তিনগুণের বেশি। হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম আরও বলছে, গত বছর (২০১৮ সাল) ডেঙ্গু আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা ছিল ১০ হাজার ১৪৮ জন। এরমধ্যে মৃত্যু হয়েছিল ২৬ জনের। গত বছর এই দিনে (৩১ জুলাই) রোগীর সংখ্যা ছিল ৯৪৬ জন। মৃতের সংখ্যা ছিল ৭। কন্ট্রোল রুম থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, ঢাকা শহর ছাড়িয়ে দেশজুড়ে এবার ডেঙ্গু ছড়িয়েছে ৬২ জেলায়। এসব জেলায় মোট ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২ হাজার ৬৫৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালগুলোতে ভর্তি হয়েছেন ৫৪৯ জন। বর্তমানে ভর্তি আছেন ১ হাজার ২২৭ জন। চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ হাজার ৪২৭ জন। কন্ট্রোল রুম থেকে জানা যায়, ঢাকা শহরের সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৫৬৬ জন। বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে এ সংখ্যা ৩৬২। বর্তমানে বেসরকারি হাসপাতালে রোগী ভর্তি আছেন ৪ হাজার ৯০৩ জন। সরকারি হাসপাতালগুলোর মধ্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৬৫২ জন, মিটফোর্ড হাসপাতালে ৯৮ জন, ঢাকা শিশু হাসপাতালে ১৩৫ জন, শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ২৮১ জন, হলি ফ্যামিলি রেডক্রিসেন্ট হাসপাতালে ২৪২ জন, বারডেম হাসপাতালে ৪৪ জন, বিএসএমএমইউতে ১১২ জন, রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে ১৪৮ জন, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৩১ জন, বিজিবি হাসপাতালে ২৩ জন এবং কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ২৯২ জন রোগী ভর্তি আছেন। আর বেসরকারি হাসপাতালগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হসপাতালে ১৪৭ জন, ইবনে সিনা হাসপাতালে ৭৭ জন, স্কয়ার হাসপাতালে ১০০ জন, শমরিতা হাসপাতালে ২৬ জন, ল্যাবএইড হাসপাতালে ২৭ জন, সেন্ট্রাল হাসপাতালে ১০১ জন, ইসলামি ব্যাংক সেন্ট্রাল হাসপাতালে ১০১ জন, সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০৭ জন, গ্রিন লাইফ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৩৬ জন, হেলথ অ্যান্ড হোপ হাসপাতালে ৩১ জন, ইউনাইটেড হাসপাতালে ৯০ জন, খিদমা হাসপাতালে ২৮ জন, অ্যাপোলো হাসপাতালে ৭৪ জন, ইউনিভার্সেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৬৬ জন, বিআরবি হাসপাতালে ৩৪ জন, বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে ৪৫ জন, উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৮৬ জন, সালাউদ্দিন হাসপাতালে ৬২ জন, পপুলার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৪৮ জন এবং আনোয়ার খান মর্ডান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২১ জন ভর্তি আছেন। ঢাকা শহরের বাইরে ঢাকা বিভাগের ১৪ জেলায় ২০৫ জন, ময়মনসিংহ বিভাগের ৪ জেলায় ১৮১ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ১১ জেলায় ১৫৭ জন, খুলনা বিভাগের ১০ জেলায় ২৬১ জন, রাজশাহী বিভাগের ৮ জেলায় ১৮৩ জন, রংপুর বিভাগের ৮ জেলায় ১২২ জন, বরিশাল বিভাগের ৬ জেলায় ৬৫ জন এবং সিলেট বিভাগের ৪ জেলায় ৫৩ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর