March 5, 2024, 9:20 am

সংবাদ শিরোনাম
শিক্ষক হাজির ২জন শিক্ষার্থীও হাজির ২ জন উলিপুরে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন চিলমারীতে এইড-কুমিল্লার ই-কমার্স বিষয়ে সচেতনতা মূলক র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ০৪ সদস্যকে গোপালগঞ্জের সদর থানা এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব কুড়িগ্রামে ব্রহ্মপুত্রের চরের শিশুদের শিক্ষা উপকরণ দিলো বাফলা পটুয়াখালীতে আগুনে পুড়ে গেছে মাছের আড়তসহ ৬ টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। কুয়াকাটায় পালিত বিশ্ব বন্যপ্রানী দিবস পালিত হয়েছে শার্শায় মরা গরুর মাংস বিক্রির অভিযোগে কসায়সহ দুজনকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত ভোলায় ২২ লক্ষ মানুষের জন্য নেই ব্লাড ব্যাংক সুন্দরগঞ্জে মাদক ব্যবসা অবাধে চলছে নেই কোন প্রতিকার

অন্তর্বর্তী সরকারের অধীনে নির্বাচন চায় বাসদ

অন্তর্বর্তী সরকারের অধীনে নির্বাচন চায় বাসদ

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

সংসদ ভেঙে অন্তর্বতীকালীন সরকার ব্যবস্থার অধীনে নির্বাচন করার প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ। সেই সঙ্গে নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন প্রণয়ন, দল নিরপেক্ষ অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠনে আলোচনা, নির্বাচনী ব্যয় ও জামানত কমানো, প্রতি তিন আসনে একজন নারী সদস্যের অংশগ্রহণ, ইভিএম নিয়ে আরও পরীক্ষামূলক কার‌্যক্রম নেওয়াসহ ১৩ দফা প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে দলটির পক্ষ থেকে। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের বিপক্ষে মত দিয়েছে বাসদ। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামানের নেতৃত্বে বাসদের ১৪ সদস্যের প্রতিনিধিদল নির্বাচন কমিশনের সংলাপে অংশ নেয়। প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা ও অন্য নির্বাচন কমিশনার ও কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। পরে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বাসদ নেতা খালেকুজ্জামান বলেন, আমরা সেনা মোতায়েনের কথা বলিনি। যখনই সেনা মোতায়েনের কথা বলব- তখন যুদ্ধ করতে যাব নাকি নির্বাচন করতে যাব? তাহলে তো একসময় জাতিসংঘের বাহিনী আনতে হবে। সেনা মোতায়েন যদি সুশৃঙ্খলতার জন্য হয়, সংঘাত মোকাবেলার জন্য সেনা ডাকতে হয়, তাহলে তো নির্বাচন হয় না। সেনা ছাড়া পরিস্থিতি যদি ইসি নিয়ন্ত্রণ করতে না পারে তাহলে নির্বাচনই তো হবে না বলে মনে করেন তিনি। বাসদের প্রস্তাবগুলোর মধ্যে রয়েছে- অবাধ নিরপেক্ষ অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের জন্য শুধুমাত্র রুটিন কাজ পরিচালনাকারী সরকারের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠান; এই ধরনের অন্তর্বর্তীকালীন সরকার ব্যবস্থা কিভাবে দল নিরপেক্ষ করা যায় সে বিষয়ে আলোচনার মাধ্যমে জাতীয় মত সৃষ্টি; নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য আলাদা আইন, নির্বাচন কমিশনের জন্য আলাদা বাজেট দেওয়া, নির্বাচনী জামানত ৫ হাজার টাকা ও নির্বাচনী ব্যয় ১০ লাখ টাকার মধ্যে সীমিত রাখা; নির্বাচিত প্রতিনিধিদের জন্য আজীবন সম্মানী ভাতা চালু করা; নির্বাচনে কালো টাকা, পেশিশক্তি, সাম্প্রদায়িকা ও আঞ্চলিকতা কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা; নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী দলের প্রাপ্ত ভোটের অনুপাতে সংসদ সদস্য নির্বাচিত করা; পরীক্ষামূলকভাবে ইভিএম ব্যবহার করা ও নির্বাচনী বিরোধ মেটানোর জন্য স্বতন্ত্র-আলাদা আদালত গঠন প্রভৃতি। এদিকে, ভবিষ্যতে জাতীয় সংসদে ১০০ জন নারী সংসদ সদস্য (এমপি) দেখতে চায় বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ)। সরাসরি নির্বাচনের মাধ্যমে প্রতি তিন আসনে একজন করে নারী সদস্য চায় দলটি। ১৪ সদস্যের দলটির নেতৃত্ব দেন দলের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান। মতবিনিময় সভায় নিজেদের দাবি লিখিতভাবে জানায় বাসদ। নির্বাচনকালীন অন্তর্বর্তীনকালীন সরকার ব্যবস্থা কীভাবে দলনিরপেক্ষ করা যায়, সে বিষয়ে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে জাতীয় মতামত সৃষ্টি করা জরুরি বলেও মনে করেন দলের নেতারা। বাসদের লিখিত দাবির মধ্যে রয়েছেÑনির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য আলাদা আইন গঠন, নির্বাচন কমিশনের জন্য আলাদা বাজেট, নির্বাচনী জামানত পাঁচ হাজার টাকার বেশি না করা, নির্বাচনী ব্যয় ১০ লাখের মধ্যে সীমিত রাখা, নির্বাচিত প্রতিনিধিদের জন্য আজীবন সম্মানী ভাতা চালু করা, নির্বাচনে কালো টাকা, পেশিশক্তি, সাম্প্রদায়িকতা ও আঞ্চলিকতা কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা, নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী দলের প্রাপ্ত ভোটের অনুপাতে সংসদ সদস্য নির্বাচিত করা, আদালত কর্তৃক শাস্তি ছাড়া শুধু ফৌজদারি মামলায় চার্জশিট দেওয়া হলেই স্থানীয় সরকারের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের বরখাস্ত না করা, পরীক্ষামূলকভাবে ইভিএম ব্যবহার করা ও নির্বাচনী বিরোধ মেটানোর জন্য স্বতন্ত্র ও আলাদা আদালত গঠন করা। এ নিয়ে মোট ২২টি দলের সঙ্গে মতবিনিময় করল ইসি।

Facebook Comments Box
Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর