July 20, 2024, 6:29 am

সংবাদ শিরোনাম
বোরহানউদ্দিন থানা পুলিশের অভিযানে ১০ হাজার ইয়াবাসহ যুবক আটক পার্বতীপুরে নব-নির্বাচিত উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও ভাই চেয়ারম্যানদ্বয়ের সংবর্ধনা রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকা হতে জাল সার্টিফিকেট ও জাল সার্টিফিকেট তৈরীর সরঞ্জামাদিসহ ০২ জন’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ র‌্যাব-১০ এর অভিযানে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং এলাকা হতে ইয়াবাসহ ০১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার কক্সবাজারে ভারী বৃষ্টিপাত পাহাড় ধ্বসে নারী-শিশু নিহত পীরগঞ্জে মসজিদের দোহাই সরকারি খাস জমির গাছ কর্তন পার্বতীপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা সিদ্দিক হোসেন এর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন দারুসসালাম লাফনাউট মাদ্রাসার দস্তারবন্দী নিবন্ধন ফরম বিতরণ শুরু পীরগঞ্জে নিখোঁজের একদিন পর শিশু’র লাশ উদ্ধার মাদক মামলায় ১৫ বছরের সাজাপ্রাপ্ত গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত দীর্ঘদিন পলাতক আসামী আলাউদ্দিন’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০

দুর্নীতির অভিযোগে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা

দুর্নীতির অভিযোগে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা
সিলেট প্রতিনিধি


সুনামগঞ্জের মধ্যনগরের চামরদানী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ভিজিডি কার্ড প্রদানে ৪ লাখ টাকা আত্বাসাৎ সহ নানা অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগের মাধ্যমে অনাস্থার দাবি জানিয়েছেন পরিষদের ৯ ইউপি সদস্য।’
অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, জেলার ধর্মপাশার মধ্যনগর থানার চামরদানী ইউপি চেয়ারম্যানের  ভিজিডি কার্ড প্রদানে ২২৬ জন সুবিধাভোগীর নিকট থেকে  ২ হাজার করে সাড়ে ৪ লাখ টাকা আদায় করেন।’  পরিষদের আসা বরাদ্দের কম্বল ও দুম্বার মাংস বিতরণ না করা,  পরিষদের ইউপিজিপি ও এলজিএসপি প্রকল্পের কাজ না করা, মাটির রাস্তার উন্নয়ন কাজ ও রিং স্লাব বিতরণ না করে প্রা ৩ লাখ টাকা, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত বিশেষ ভিজিএফ-এর চাল ও নগদ টাকা বিতরণে অনিয়ম-দুর্নীতি করে তা লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেন ইউপি চেয়ারম্যান।’
অভিযোগে আরো উল্ল্যেখ করা হয়, ইউনিয়নের সারাকোনা গ্রামের নদীতে অবৈধ খেয়াঘাট সৃজন করে অর্থ আদায় করে তা আত্মসাত করেন ওই চেয়ারম্যান। কাজ না করে নানাভাবে জাল-জালিয়াতি করে অতিদরিদ্রদের জন্য কর্মসৃজন প্রকল্পের বরাদ্দ আত্মসাত করেন। গত বছর হাওরের বোরো ফসল রক্ষা বাঁধ নির্মাণে পাউবোর প্রকল্প বাস্তবায়নে ইউপি সদস্যদের লিখিত দায়িত্ব প্রদান করে কৌশলে তিনি সকল প্রকল্পের অর্থ আত্মসাত করেছেন। বিভিন্ন দিবসের নামে ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নিকট থেকে চাঁদা আদায় করে কর্মসূচি পালন না করে অর্থ আত্মসাত করেন। গত ১৭ অক্টোবর চেয়ারম্যান উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে অসদাচরণ করেন। এ ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে চেয়ারম্যান মান্নাকে কারাদন্ড প্রদান করলে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সুপারিশে ও শর্তসাপেক্ষ মুচলেখায় মুক্তি পান তিনি।
অনাস্থা প্রস্তাব ও লিখিত অভিযোগে স্বাক্ষর করেন ,পরিষদের ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আবদুল মোতালিব, ১,২ ও ৩ নং সংরক্ষিত ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য বেগম মোছা. খোদেজা, ৭,৮ ও ৯ নং সংরক্ষিত ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সেজনা বেগম, ১ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আনিসুজ্জামান, ২ নং ওয়ার্ডের জীবন কৃষ্ণ তালুকদার, ৪ নং ওয়ার্ডের রতন কুমার সরকার, ৫ নং ওয়ার্ডের আবুল কালাম, ৬ নং ওয়ার্ডের  বকুল সরকার, ৮নং ওয়ার্ডের  ওয়াসিল আহমদ ও ৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য দুলাল মিয়া।’ এ  ব্যাপারে  মধ্যনগরের চামরদানী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকিরুল আজাদ মান্না শুক্রবার বলেন‘ আমাকে হয়রানীর জন্য তারা এসব মিথ্যা অভিযোগ করছেন। আমার বিরুদ্ধে অর্থ আস্বসাৎ সহ কারাদন্ড দেয়ার যে অভিযোগ আনা হয়েছে তাও মিথ্যাচার করা হচ্ছে।

Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর