June 19, 2024, 11:40 pm

সংবাদ শিরোনাম
সিসিটিভির আওতায় উলিপুরঃ সম্মানিত নাগরিকদের নিরাপত্তায় পুলিশের এই প্রচেষ্টা সরিষাবাড়ীতে ৪ হাজার ব্যক্তির মাঝে এমপির চাল বিতরণ চিলমারীতে পৈ‌ত্রিক সম্প‌তি নি‌য়ে বি‌রো‌ধের জের ধ‌রে প্রায় ১৪ বছরের পুরোনো কবর ভেঙে ফেলার অভিযোগ গাজীপুর কালিয়াকৈর চান্দ্রায় ঈদ যাত্রার যাত্রীদের দুর্ভোগ কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এসেছে বোতলনোজ প্রজাতির মৃত ডলফিন উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে আরসার গান কমান্ডার গ্রেফতার ফরিদপুরের নগরকান্দার চাঞ্চল্যকর “ক্লুলেস ডাকাতি” ঘটনার মূলহোতা দুর্ধর্ষ ডাকাত সর্দার রবিজুল শেখ’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ রংপুরের পীরগঞ্জে ইয়াবা, জুয়ারী,ও ওয়ারেন্টের আসামী সহ ৮জনকে আটক করে পীরগঞ্জ থানা পুলিশ ভূমি সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে জনসচেতনতা মূলক আলোচনা সভা জৈন্তাপুরে চিকনাগুল বাজারে অবৈধ পশুর হাট, সরকার হারাচ্ছে কোটি টাকার রাজস্ব

অস্ত্র মামলায়ও খালাস চট্টগ্রামের শিক্ষানবিশ আইনজীবী সমর চৌধুরী

অস্ত্র মামলায়ও খালাস চট্টগ্রামের শিক্ষানবিশ আইনজীবী সমর চৌধুরী

ডিটেকটিভ নিউজ ডেস্ক

প্রবাসীর প্ররোচনায় ইয়াবা ও অস্ত্র দিয়ে ফাঁসানো শিক্ষানবিশ আইনজীবী সমর কৃষ্ণ চৌধুরী অস্ত্র আইনের মামলা থেকে খালাস পেয়েছেন। গতকাল বুধবার চট্টগ্রামের জেলা জজ মো. ইসমাইল হোসেন এ আদেশ দেন। এর আগে গত মাসে মাদক আইনে করা দুটি মামলা থেকেও খালাস পান সমর কৃষ্ণ। গত বছরের ১২ জুলাই জামিনে মুক্ত হন তিনি। অস্ত্র ও মাদকের মামলায় এতদিন তিনি জামিনে ছিলেন। সমর কৃষ্ণের আইনজীবী ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী বলেন, অস্ত্র মামলাটির তদন্ত শেষে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেওয়া হয়। এ বিষয়ে গতকাল বুধবার শুনানির জন্য নির্ধারিত ছিল। শুনানি শেষে আদালত সমর কৃষ্ণ চৌধুরীকে মামলার অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন। সমর কৃষ্ণ চৌধুরী বলেন, মামলা থেকে খালাস পেয়ে খুব ভালো লাগছে। পিবিআই সঠিকভাবে তদন্ত করে কোনো অভিযোগের প্রমাণ পায়নি। আদালত, আইনজীবী ও গণমাধ্যমকে ধন্যবাদ জানিয়ে এই শিক্ষানবিশ আইনজীবী বলেন, আমাকে বিনাদোষে গত এক বছর চার মাস নানাভাবে কষ্ট দেওয়া হয়েছে। যারা আমাকে কষ্ট দিয়েছে আদালতের কাছে আমি তাদের বিচার চাইব। আশা করি আমি আদালতে যাব। জায়গা-জমির বিরোধে লন্ডন প্রবাসী সঞ্জয় দাশ নামে এক ব্যক্তির ‘প্ররোচনায়’ ২০১৮ সালের ২৭ মে বোয়ালখালীর পুলিশ সমর চৌধুরীকে নগরী থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ৩৬০টি ইয়াবা ও একটি অস্ত্র দিয়ে ফাঁসিয়ে দেয় বলে অভিযোগ করে আসছিল তার পরিবার। তার পরিবারের অভিযোগ, চট্টগ্রাম রেঞ্জের সেসময়ের ডিআইজি এসএম মনির-উজ-জামান প্রবাসী সঞ্জয় দাশের প্ররোচনায় সমরকে ‘মিথ্যা’ মামলা দিয়ে গ্রেফতার করিয়েছিলেন। শার্টের পকেটে কলম, হাতে অস্ত্র নিয়ে সমর কৃষ্ণের ছবি গণমাধ্যমে আসার পর বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তীব্র সমালোচনার পাশাপাশি প্রতিবাদ কর্মসূচি হয়ে আসছিল চট্টগ্রামে। গত বছরের ১ জুলাই সমরের পরিবারের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করে সমর চৌধুরীর মুক্তিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চাওয়া হয়। এর পরদিন সমালোচনা মুখে থাকা ডিআইজি মনির-উজ-জামানকে বদলি করে পুলিশ সদর দপ্তরে সংযুক্ত করার আদেশ দেয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর