June 16, 2024, 6:45 pm

সংবাদ শিরোনাম
সিসিটিভির আওতায় উলিপুরঃ সম্মানিত নাগরিকদের নিরাপত্তায় পুলিশের এই প্রচেষ্টা সরিষাবাড়ীতে ৪ হাজার ব্যক্তির মাঝে এমপির চাল বিতরণ চিলমারীতে পৈ‌ত্রিক সম্প‌তি নি‌য়ে বি‌রো‌ধের জের ধ‌রে প্রায় ১৪ বছরের পুরোনো কবর ভেঙে ফেলার অভিযোগ গাজীপুর কালিয়াকৈর চান্দ্রায় ঈদ যাত্রার যাত্রীদের দুর্ভোগ কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে এসেছে বোতলনোজ প্রজাতির মৃত ডলফিন উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে আরসার গান কমান্ডার গ্রেফতার ফরিদপুরের নগরকান্দার চাঞ্চল্যকর “ক্লুলেস ডাকাতি” ঘটনার মূলহোতা দুর্ধর্ষ ডাকাত সর্দার রবিজুল শেখ’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০ রংপুরের পীরগঞ্জে ইয়াবা, জুয়ারী,ও ওয়ারেন্টের আসামী সহ ৮জনকে আটক করে পীরগঞ্জ থানা পুলিশ ভূমি সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে জনসচেতনতা মূলক আলোচনা সভা জৈন্তাপুরে চিকনাগুল বাজারে অবৈধ পশুর হাট, সরকার হারাচ্ছে কোটি টাকার রাজস্ব

পাইকগাছায় ফসিয়ার রহমান মহিলা কলেজ অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে দূর্নীতি অনিয়মের অভিযোগ প্রমানিত : বেতন ভাতা কেন স্থগিত নয় শিক্ষা অধিদপ্তরের কারণ দর্শানো নোটিশ

এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ,পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধিঃ

খুলনার পাইকগাছা ফসিয়ার রহমান মহিলা কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে দূর্নীতি ও অর্থ আত্মসাৎসহ ১৫টি অভিযোগের ৫টির প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছে তদন্ত কমিটি। জনবল কাঠামো-২০১৮ মোতাবেক কেন বেতন ভাতা স্থগিত করা হবে না ৭ কর্মদিবসের কারণ দর্শাতে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।একই কলেজের সহকারি অধ্যাপক ও শিক্ষক প্রতিনিধি সেখ রুহুল কুদ্দুস ও সহকারী অধ্যাপক শুধাংশু কুমার মন্ডল কলেজটির অধ্যক্ষ মোঃ রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দূর্ণীতি ও অর্থ আত্মসাতসহ ১৫টি অভিযোগ করেন। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, ঢাকা নির্দেশনা মোতাবেক খুলনা অঞ্চলের পরিচালক প্রফেসর শেখ হারুনর রশিদ এবং উপ-পরিচালক (কলেজ) এস,কে মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি তদন্ত করেন। ১৫ এপ্রিল ৩৭.০২.৪৭০০.০০০.০১.০০১.০১.১৭.২৮৬ নং স্মারকের পত্রের আলোকে তদন্ত সম্পন্ন করেন। এ সময় প্রয়োজনীয় প্রমানসহ অভিযোগকারীগণ উপস্থিত হয়ে ১৫টি অভিযোগের সত্য-মিথ্যা যাচাই বাছাই হয়েছে। গত ২৩ জুলাই শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ৩৭.০২. ০০০০. ১০৫. ৩১. ১১৩. ১৯/২৯০৯/৬ নং স্মারকে সহকারী পরিচালক, (কলেজ-৩) এর ফারহানা আক্তার স্বাক্ষরিত একটি কারণ দর্শানোর পত্র দেন। যাতে অধ্যক্ষ রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে ১৫টি অভিযোগের মধ্যে ৫টির প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া যায় বলে তদন্তÍ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। বৃত্তি প্রদানের অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতি, অনুদান দেখিয়ে দাতা সদস্য করা, নিয়মিত হাজিরা খাতায় অধ্যক্ষের স্বাক্ষর না থাকা, প্রতিষ্ঠানে বই ক্রয়ে অনিয়ম, জিপিএ ৫ পাওয়া ছাত্রীর অনুদান ও পোষাক বাবদ অর্থ না দেয়ার অভিযোগ অন্যতম। দীর্ঘদিন ধরে নিজ হস্তে রাখা আর্থিক বিধির পরিপন্থিসহ বিভিন্ন অভিযোগ আমলে নিয়ে অধ্যক্ষকে তার কারন দর্শাতে বলা হয়েছে। জনবল কাঠামো-২০১৮ এ ১৮.১ (খ) ধারা মোতাবেক কেন তার বেতন ভাতা স্থগিত করা হবে না পত্র প্রাপ্তির ৭ কর্মদিবসের মধ্যে তার জবাব দিতে বলা হয়েছে। এ ব্যাপারে অধ্যক্ষ রবিউল ইসলামের কাছে ০১৭১১-২৪৮২৩৭ নং মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি ব্যস্ত আছেন বলে ফোনটি কেটে দেন। পরে বার বার যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোনটি রিসিভ করেননি।

প্রাইভেট ডিটেকটিভ/০৪ আগস্ট ২০১৯/ইকবাল

Share Button

     এ জাতীয় আরো খবর