May 19, 2022, 11:03 am

বাংলাদেশ শান্তি চায়, কৌশলগত কারনে ভোটদানে বিরত ছিল- তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী

চট্টগ্রাম ব্যুরো :তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারো সাথে শত্রুতা নয়-এটা হচ্ছে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতির অন্যতম বৈশিষ্ট্য। বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সবসময় শান্তি চায়, স্থিতিশীলতা চায়। বাংলাদেশ যুদ্ধ চায় না। কারো সাথে শত্রুতা চায় না। কাজেই বাংলাদেশ কৌশলগত কারনে জাতিসংঘে ভোট প্রদান করেনি। এ নিয়ে অপপ্রচার বা অপরাজনীতি করার কিছু নেই।

 

তথ্যমন্ত্রী আজ চট্টগ্রামে নিজ বাসায় সাংবাদিকদের সাথে সাম্প্রতিক বিষয় নিয়ে মতবিনিময়কালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।

 

বিএনপি মহাসচিব মীর্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সাম্প্রতিক মন্তব্যের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, অনেক দেশ ভোটদানে বিরত ছিল। আমাদের পাশ্ববর্তী দেশ ভারতও ভোটদানে বিরত ছিল। মীর্জা সাহেবের নিকট আমার প্রশ্ন- ভারত কেন ভোটদানে বিরত ছিল। তিনি সে প্রশ্নের জবাব দিয়ে যাবেন। আসলে তারা খেই হারিয়ে ফেলেছেন। বক্তব্যের বিষয় খুঁজে পাচ্ছেন না। তাই আবোল তাবোল বকছেন।

 

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ইউক্রেনে বাংলাদেশী জাহাজ আক্রান্ত হওয়ার পরপরই সরকার নাবিকদের উদ্ধারে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিয়েছে। জাহাজে অবস্থানরত নাবিকদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়েছে। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক বিধি-বিধান অনুযায়ী যখন কোন জাহাজ পরিত্যাক্ত হয়, তখন সে জাহাজের মালিকানা কোথায় যাবে-তা বলা যায় না। সরকার জাহাজের মালিকানার চেয়ে নাবিকদের জীবনকে প্রাধান্য দিয়েছে। তাদের উদ্ধারে সব ব্যবস্থা নিয়েছে। এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে বিদেশে প্রশংসিত হয়েছেন।

 

দ্রব্যমূল্য বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীতে সব স্থানেই দ্রব্যমূল্য বেড়েছে। এটা সত্য যে দেশে ভোগ্য পণ্যের মূল্য কিছুটা বেড়েছে। তবে তার চেয়ে বড় কথা-মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে। নিম্ম আয়ের মানুষের মাথাপিছু আয় তিনগুণ বেড়েছে। খেটে খাওয়া মানুষ বর্তমানে একদিনের আয় দিয়ে পনের কেজির অধীক চাল কিনতে পারে। তিনি বলেন, অন্যদেশগুলোতে দাম বাড়লেও সেখানকার মানুষের মাথাপিছু আায় বাড়ে নি। কিন্তু আমাদের দেশে আয় বেড়েছে। মানুষ পণ্য সামগ্রী ক্রয় করতে পারছে। সবাই ভাল আছে।

Facebook Comments Box
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ