June 23, 2021, 8:51 am

শিরোনাম :
আরো ৭৬ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৪৮৪৬ ঢাকার সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ বিপুল পরিমান ইয়াবাসহ ষাট বছরের বৃদ্ধ আটক দীর্ঘ ৫০ বছর পর দিনাজপুর কারাগারে ফাঁসি কার্যকর বন্ধ হলো বেনাপোল বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য কার্যক্রম রাজশাহী ডিবি পুলিশের অভিযানে ২মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ভোলার চরফ্যাশনে ভোটকেন্দ্রের বাইরে সংঘর্ষ-গোলাগুলি ; নিহত ১ আগামী কাল থেকে যশোরে আবারো ৭ দিনের লকডাউন বেনাপোলে পৃথক অভিযানে ফেন্সিডিল গাজা ইয়াবাসহ আটক-৫ নারায়ণগঞ্জে বিদেশী সিগারেটসহ ২ কালোবাজারী আটক ইসলামপুরে মাদক ব্যবসায়ী মশু ইয়াবা সহ গ্রেফতার রংপুরে হরিজনের নাবালিকা মেয়ে ধর্ষণকারীদের গ্রেফতার ও সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ রংপুরে নারী সাংবাদিক আটক, ডিবির ওসি পরিচয়ে ৩০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি ও হুমকি শার্শায় ভ্রাম্যমান আদালতের ৪ টি ব‍্যবসা প্রতিষ্ঠানে জরিমানা ঝিকরগাছার বাঁকড়ায় করোনায় মৃত্যু ৩ আতঙ্কে পুরো এলাকা রাজশাহীর মোহনপুরে ফেন্সিডিল সহ ০১ নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার যশোরে ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যু ৪ ; আক্রান্ত ৩০৫ নাগেশ্বরীতে ঘুষ গ্রহনের অভিযোগে কর্মসংস্থান ব্যাংকের ব্যবস্থাপক অবরুদ্ধ ৩ হাজার টাকার জন্য মানুষ খুন ! গাইবান্ধায় ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাসে নতুন করে ১২ জন শনাক্ত

বাংলাদেশ থেকে ইন্টারনেট চায় ভারত

Spread the love

ডিটেকটিভ ডেস্কঃঃ

বাংলাদেশ থেকে আবারও ইন্টারনেট নিতে চায় ভারত। এবার তাদের চাহিদা আগের তিনগুণ। বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেডকে এ বিষয়ে চিঠি দিয়েছে ভারতের রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান বিএসএনএল। কর্তৃপক্ষ বলছে, ইন্টারনেট পেতে হলে ভারতকে বকেয়া ১০ কোটি টাকা পরিশোধ করতে হবে। তবে রপ্তানির তুলনায় বহুগুন আমদানি হচ্ছে ভারত থেকে। যদিও ইন্টারনেট আমদানিতে নিরাপত্তা ঝুঁকি দেখছেন বিশ্লেষকেরা।

উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে ১০ জিবিপিএস ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট নিতে ২০১৫ সালে বাংলাদেশের সঙ্গে চুক্তি করে ভারত। এর আওতায় চার বছর ইন্টারনেট রপ্তানি করে বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেড। কিন্তু চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই ফেব্রুয়ারি থেকে ইন্টারনেট নেয়া বন্ধ করে ভারতের প্রতিষ্ঠান বিএসএনএল। বকেয়া হয় প্রায় ১২ লাখ ডলার।

গত জুলাইয়ে ইমেইল বার্তায় আবারও বাংলাদেশ থেকে ইন্টারনেট নেয়ার আগ্রহ দেখিয়েছে বিএসএনএল। এবার চাহিদা ৩০ জিবিপিএস। তবে এবার রপ্তানিমূল্য আরও কমছে। সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মশিউর রহমান জানিয়েছেন, দু’দেশের দাম সমন্বয় করে নতুন মূল্য নির্ধারণ করা হবে।

তবে সারাদেশের প্রেক্ষাপটে রপ্তানির তুলনায় বহুগুন ইন্টারনেট আমদানি হচ্ছে ভারত থেকে। সরকারি হিসাবে, মোট চাহিদার প্রায় ৩৮ শতাংশই আমদানি হচ্ছে। যদিও ভারত থেকে ইন্টারনেট আমদানির যৌক্তিকতা নেই বলে মনে করেন বিশ্লেষকেরা। তারা বলছেন, আগে দেশে একটি সাবমেরিন ক্যাবল থাকায় আমদানি যৌক্তিক ছিল। কিন্তু দেশে এখন দুটি সাবমেরিন ক্যাবল রয়েছে। যা দিয়ে অভ্যন্তরীণ চাহিদা পূরণ করা সম্ভব।

তবে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলছেন, নিরবচ্ছিন্ন সেবা নিশ্চিতে এখনি আমদানির পথ থেকে সরে আসবে না সরকার। তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবল সংযোগ হলে আমদানি বন্ধ করা হবে।

বর্তমানে দুটি সাবমেরিন ক্যাবল দিয়ে ১২শ ৩৫ জিবিপিএস ইন্টারনেট সরবরাহ করছে সরকার।

Facebook Comments Box
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ