July 26, 2021, 1:15 am

শিরোনাম :
মাধবপুরে পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক করোনা মোকাবেলায় জগন্নাথপুর ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তারা মাঠে ঝিকরগাছায় খেলাকে কেন্দ্র করে নয়ন নামের এক যুবক হত্যা ধান্ধা লীগে বিব্রত আওয়ামী লীগ; লীগ যুক্ত করে নিত্যনতুন দোকান খুলছে সুবিধাভোগীরা সাদুল্ল‍্যাপুরে পেট্রোল বোমা ও ককটেল সাদৃশ্য বস্তু উদ্ধার চিলমারীতে সাংবাদিকের বাসায় চুরি! শশুর বাড়ি থেকে সিএনজি চুরি! রাজশাহীতে লকডাউন বাস্তবায়নে তানোর থানা পুলিশের তৎপরতা ভারতীয় রেলওয়ের ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’ বাংলাদেশের পথে জগন্নাথপুরে গৃহবধূর আত্মহত্যা যশোর পৌর পার্কের পুকুরে ডুবে যাওয়া শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার জগন্নাথপুরে লক ডাউন মোকাবেলায় মাঠে প্রশাসন, ১৫ প্রতিষ্ঠানকে অর্থদণ্ড চরফ্যাশনে মেঘনার তীরে অজ্ঞাত দুই যুবকের লাশ উদ্ধার রমেকে অক্সিজেন সিলিন্ডার চুরির চেষ্টায় ড্রাইভার সহ হেল্পার আটক ভোলায় লকডাউনের প্রথম দিনে রাজধানীমুখী যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবিতে ১৭ বাংলাদেশির মৃত্যু বাংলাদেশের নামও পেগাসাসের তালিকায় মুনিয়ার আত্মহত্যায় আনভীরের দোষ পায়নি পুলিশ কাল থেকে সবচেয়ে কঠোর লকডাউন ছুটির দিনে ১৮৭ মৃত্যু, শনাক্ত ৩ হাজার ৬৯৭

পটুয়াখালীতে ক্ষেতের ফসল নষ্ট করার প্রতিবাদ করায় প্রাণ গেলো যুবকের

Spread the love
রাজিব হোসেন সুজন, বরিশাল ব্যুরোঃ
পটুয়াখালী সদর উপজেলাধীন লোহালিয়া ইউনিয়নের চর কুড়িপাইকা সরকারি আবাসন এলাকায় ক্ষেতের ফসল গরু দিয়ে নষ্ট করার প্রতিবাদ করায় মোঃ দেলোয়ার হোসেন মোল্লা (৪০) নামে এক যুবককে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। নিহত দেলোয়ার হোসেন মোল্লা চর কুড়িপাইকা নিবাসী মৃত কাছেম মোল্লার ছেলে।
বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, একই আবাসনের বাসিন্দা মোঃ সুমন খান এর সাথে মোঃ দেলোয়ার হোসেন মোল্লার জমিজমা ও রাজনৈতিক কারণ সহ বিভিন্ন কারনে বিরোধ চলে আসছিলো। গত শুক্রবার (২৫ জুন) দুপুর আনুমানিক ১২:৩০ ঘটিকার সময় মোঃ সুমন খান গরু দিয়ে দেলোয়ার হোসেন মোল্লার ক্ষেতের ফসল নষ্ট করা নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি এবং পরে উভয় পক্ষে মারামারি হয়। মারামারির এক পর্যায়ে মোঃ সুমন খান এর পুত্র মোঃ সাকিব খান (১৯) দেলোয়ার মোল্লার মাথায় মুগুর দিয়ে আঘাত করে। দেলোয়ার হোসেন মোল্লা মাটিতে শুয়ে পড়ে যখন ছটফট করছিলো তখনও সাকিব খান দেলোয়ার মোল্লাকে পিটাইতে থাকে।
জানা গেছে, মুগুরের সাথে লোহার পেরেক ছিলো এবং তা দেলোয়ার মোল্লার মাথায় ঢুকে যায়। দেলোয়ার মোল্লা অজ্ঞান হয়ে পড়লে তাকে প্রথমে পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে এবং পরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেলে এবং সবশেষ ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায়ই গত মঙ্গলবার (২৯ জুন) বিকেল ৪ টায় তিনি মৃত্যু বরন করেন। ময়না তদন্ত শেষে বুধবার রাতে দেলোয়ার মোল্লার লাশ চর কুড়িপাইকা সরকারি আবাসনে আনা হয় এবং বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) সকাল ১০ টায় আবাসন এলাকায় দাফন করা হয়।
এলাকাবাসী জানান, “তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেলোয়ার মোল্লাকে হত্যা করা হয়েছে। এটা আসলে একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। কেননা দেলোয়ার মোল্লার সাথে তাদের অনেক আগে থেকেই বিভিন্ন কারণে বিরোধ চলে আসছিলো। তাই একটি তুচ্ছ ঘটনার অযুহাতে দেলোয়ার মোল্লাকে হত্যা করা হয়েছে।”
তারা আরও বলেন, “দেলোয়ার মোল্লা ছিলো একজন নিরীহ লোক। পারতে সাধ্যে কারো সাথে সে কোনো ঝামেলায় জড়াতো না। তার ৪ ছেলে-মেয়ে। বড় মেয়েটার বয়সই মাত্র ১২ বছর। এরপর একটি ছেলে, বয়স ৭ বছর। তারপর মেয়ে বয়স ৩ বছর এবং শেষে একটি ছেলে, বয়স ৬ মাস। দেলোয়ার মোল্লার মৃত্যুতে গোটা পরিবারটা আজ অসহায়। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই। “
উল্লেখ্য, গত শনিবার (২৬ জুন) দেলোয়ার মোল্লার ভাই মোঃ বাদল মোল্লা (২৩) বাদী হয়ে মোঃ সুমন খান এবং তার দুই ছেলে সাকিব খান ও রাজীব খান ও তার স্ত্রী মোসাঃ সালমা বেগমকে আসামী করে পটুয়াখালী বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল মাজিস্ট্রেট আদালতে ১৪৩ ধারা সহ কয়েকটি ধারায় মামলা দায়ের করে। পুলিশ আসামীদের গ্রেফতার করে আদালতে হাজির করলে বিজ্ঞ আদালত সাকিব খানকে কারাগারে প্রেরন করেন।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস. আই মোঃ মাসুদ রানার সাথে কথা বলে জানা গেছে, মামলাটি হত্যা মামলা ছিলো না। কিন্তু যেহেতু দেলোয়ার মোল্লা এখন মারা গেছে, তারা এখন চলতি মামলার সাথেই ৩০২ ধারা যোগ করে দিবেন। অর্থাৎ মামলাটি এখন হত্যা মামলায় রূপ নিবে।
এদিকে মোঃ সুমন খান একই আদালতে গত মঙ্গলবার (২৯ জুন) দেলোয়ার মোল্লা ও তার স্ত্রী মোসাঃ নাসিমা বেগম এবং মোঃ বাদল মোল্লা ও তার স্ত্রী মোসাঃ নাসরিন বেগমকে আসামী করে ১৪৩ ধারা সহ কয়েকটি ধারায় একটি পাল্টা মামলা করেন।
Facebook Comments Box
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ