September 26, 2021, 10:20 pm

শিরোনাম :
মানবিক বিপর্যয়ের মুখে মিয়ানমার ২৪ ঘণ্টায় আরো ৩১ মৃত্যু নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় প্রেমের স্বীকৃত না পেয়ে নিজের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন পুঠিয়া থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ১৫ ৪১ বছর পর শার্শার ৮ জালিয়াতের বিরুদ্ধে যশোর জেলা প্রশাসকের মামলা বিনামূল্যের মাস্ক কিনতে হয়েছে টাকা দিয়ে আটপাড়া উপজেলা প্রশাসনের কাছ থেকে ভারতে পাচার হওয়া দুুই তরুুনীকে বেনাপোল দিয়ে ফেরত গণপিটুনিতে যশোরে এক ব্যক্তির মৃত্যু তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে স্বাস্থ্য সহকারীকে হেনস্তার অভিযোগ লালপুরের ৮ ইমো হ্যাকার গ্রেপ্তার জগন্নাথপুর বাজারে দোকানভিটের মালিকানা নিয়ে দুই ব্যবসায়ীর বিরোধ তুঙ্গে ঝিনাইদহে বজ্রপাত প্রতিরোধে তালবীজ রোপণ জৈন্তাপুরে দেবরের হাতে ভাবি খুন,সৎ ভাই আহত। আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে ঘিরে ইসলামপুরে সাজ সাজ রব বেনাপোল স্থলপথে ভারতে গেল সরকারের বিশেষ অনুমতির ২৩ মেট্রিক টন ইলিশ নাটোরে স্ত্রীকে কুপিয়ে স্বামীর বিষপানে আত্মহত্যা কুয়াকাটা কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল নির্মাণ কাজের উদ্বোধন সংঘর্ষে আহত বৃদ্ধের অবস্থা আশঙ্কাজনক জৈন্তাপুরে মুজিব নগরের ঘরের বারান্ধা ভেঙ্গে দিয়েছে দুস্কৃতিকারিরা বেনাপোল বন্দরের পন্যবহন বন্ধ চলচ্ছে পরিবহনের কর্মবিরতি

ঢাবির শতাধিক কর্মকর্তার পদোন্নতির আবেদন ভুয়া সনদে

Spread the love

ডিটেকটিভ ডেস্কঃঃ

কম্পিউটার দক্ষতা বিষয়ক ভুয়া সনদ দিয়ে পদোন্নতির আবেদন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতাধিক কর্মকর্তা। যদিও, তারা কম্পিউটারের কিছুই জানেন না। এর আগেও অনেক কর্মকর্তা এমন সনদ দিয়ে পদোন্নতি নিয়েছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাদের পদোন্নতির জন্য এক বছরের কম্পিউটার কোর্সের প্রয়োজন হয়। সে কোর্স না করলে পদোন্নতির নিয়ম নেই।

ঢাবির এমনই এক কর্মকর্তা মনির হোসেন। তিনি কম্পিউটারের এক বছরের কোর্স করে পদোন্নতি নিয়েছেন। কিন্তু কম্পিউটার চালু করে দেখানোর কথা বললেই তিনি উঠে চলে যান।

আরেক কর্মকর্তা নায়না ফেরদৌস কম্পিউটারের কোর্স করেছেন। কিন্তু তার অফিসে গিয়ে এ বিষয়ে কথা বলার জন্য ফোন দিলে তিনি আর অফিসেই আসেন নি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এরকম অনেক কর্মকর্তাই কম্পিউটারের সনদ নিয়ে পদোন্নতি নিয়েছেন। তবে, তাদের অনেকেই কম্পিউটার চালাতেই পারেন না। নতুন করে পদোন্নতির আবেদন করেছেন শতাধিক কর্মকর্তা। যাদের বেশিরভাগই সনদ নিয়েছেন আজিজ সুপার মার্কেটের কর্মযোগ সংস্থা নামের প্রতিষ্ঠান থেকে।

অথচ আজিজ সুপারে এই প্রতিষ্ঠানের ঠিকানায় গিয়ে দেখা গেল কাপড়ের দোকান। বছরখানেক আগেই এই প্রতিষ্ঠান উঠে গেছে। কোন ক্লাস না নিয়েই সনদ দিতো তারা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলছে, নতুন করে ভুয়া সনদ দিয়ে পদোন্নতির আবেদনগুলো আটকে দেয়া হয়েছে। এসব বিষয়ে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস উপাচার্য্যের।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এম আখতারুজ্জামান বলেন, “যতদ্রুত সম্ভব এবিষয়ে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে”।

এছাড়া ভুয়া সনদ দেয়া প্রতিষ্ঠানের বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকেও অনুরোধ জানানো হয়েছে।

//ইয়াসিন//

Facebook Comments Box
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ