,

হবিগঞ্জ খোয়াই নদীর বাঁধে গলা দ্বিখন্ডিত হত্যা/ দ্বিখণ্ডিত মাথা উদ্ধার শাস্তাগন্জ।

হবিগঞ্জ খোয়াই নদীর বাঁধে গলা দ্বিখন্ডিত হত্যা/ দ্বিখণ্ডিত মাথা উদ্ধার শাস্তাগন্জ।

মো:মকসুদ মিয়া হবিগঞ্জ সদর প্রতিনিধি \ হবিগঞ্জ শহরের মাছুলিয়া এলাকায় মধ্যরাতে খোয়াই নদীর বাঁধে নিয়ে বালু শ্রমিক কদর আলী (৪৮)কে নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়েছে। নিহত কদর আলী পৌরসভার ইনাতাবাদ জঙ্গল বহুলা এলাকার মোঘল মিয়ার পুত্র। শনিবার সকালে মাথা বিহীন একটি মরদেহ পরে থাকতে দেখলে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশসহ স্বজনরা ঘটনাস্থলে পৌছে কদর আলীর পরিবারের লোকজন তাকে শনাক্ত করে। পরে

মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপতাল মর্গে প্রেরণ করে।

নিহতের স্বজনরা জানান, কদর আলী খোয়াই নদী থেকে বালু উত্তোলনের শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো। শুক্রবার বিকেলে বাড়ি থেকে বের হন তিনি। কিন্তু রাতে আর বাসায় ফেরেনি। অনেক খুজাখুজি করেও তার সন্ধান মিলেনি। গতকাল সকালে স্থানীয়রা একটি মাথাবিহীন মরদেহ নদীর বাঁধে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে সংবাদ দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। পরে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে তাকে শনাক্ত করা হয় এবং বেশ কয়েকজন ঘাতককে চিহ্নিত করা হয়।

এদিকে, নির্মম এ হত্যাকান্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলি। এসময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, সিসি টিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে ঘাতকদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। এছাড়াও মরদেহের মাথা উদ্ধারেও কাজ করছে পুলিশ। তিনি বলেন, এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রæত আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। এসময় জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও গোয়েন্দা শাখার কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে, কি কারণে কদর আলীকে এমন নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়েছে তার রহস্য উদঘাটে কাজ করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বেশ কয়েকটি টিম। তবে কদর আলীর এমন মৃত্যু মেনে নিতে পারছে না স্বজনরা। কান্নায় ভেঙে পড়ছেন তারা। গতকাল রাতে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ ঘটনায় কোন মামলা দায়ের হয়নি।

এদিকে রবিবার (সকাল ১০টা) দিকে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার দাউদনগর বন্দেগী শাহ সৈয়দ দাউদ (রহ.) ও বন্দেগী সৈয়দ মহিব উল্লা (রহ.) মাজারের পুকুর থেকে দেহবিহীন মাথাটি উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অজয় চন্দ্র দেব বলেন, স্বজনরা খণ্ডিত মাথাটি শনাক্ত করেন। দেহটি এখনো পাওয়া যায়নি।

Facebook Comments Box
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ