May 9, 2021, 9:53 pm

শিরোনাম :
যাত্রাবাড়ী ও দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ এলাকায় পৃথক অভিযানে গাঁজা ও ইয়াবাসহ ০৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার রাবি ভিসির ‘মানবিক নিয়োগ’ টিকবে কি? ২৪ ঘণ্টায় আরো ৫৬ মৃত্যু দণ্ডিত হওয়ায় বিদেশে চিকিৎসা নিতে যেতে পারবেন না খালেদা নতুন নিয়োগপ্রাপ্তদের যোগদান স্থগিত করলো রাবি প্রশাসন ফেরি বন্ধ থাকলেও ঘাটে বাড়িফেরা মানুষের ভিড় যশোরে দু’জনের শরীরে করোনার ইন্ডিয়ান ভ্যারিয়েন্ট ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু অতিদরিদ্রদের ৪০ দিনের কর্মসূচির নামে কোটি টাকা লুটপাটের পায়তারা কিটের মূল্য কমলেও কমেনি বেসরকারি ল্যাবে করোনা পরীক্ষার ফি খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার বিষয়ে মতামত কাল: আইনমন্ত্রী ভারতে একদিনে ৪ হাজারের বেশি মৃত্যুর নতুন রেকর্ড শ্রীমঙ্গলে ১ কোটি ২৫ লাখ টাকার ভারতীয় চশমা—সানগ্লাস আটক চীনা রকেটের ধ্বংসাবশেষ এ সপ্তাহেই আছড়ে পড়বে পৃথিবীতে ইসলামের নামে সহিংসতায় জড়িতরা অমানুষ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সেনা প্রত্যাবর্তনে আফগানিস্তানে যুদ্ধবিমান পাঠাবে আমেরিকা আইপিএল স্থগিতে ক্ষতি ২৮৮১ কোটি টাকা ঈদের আগে অস্থির নিত্যপণ্যের বাজার জগন্নাথপুরে ইউনিয়ন শ্রমিকলীগ সভাপতিকে প্রাণ নাশের হুমকি জগন্নাথপুরে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা পটুয়াখালীতে একাধিক চুরি, ডাকাতি ও ওয়ারেন্ট ভুক্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার

রাজশাহীর বাগমারা’র সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপকসহ চার কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা

Spread the love
রুহুল আমীন খন্দকার, ব্যুরো প্রধান ::
রাজশাহীর বাগমারা থানার ভবানীগঞ্জ সোনালী ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপকসহ তিন সিকিউরিটি গার্ডের বিরুদ্ধে রাজশাহীর বিজ্ঞ ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত-২ মামলাটি দায়ের করা হয়েছে। মামলাটি দায়ের করেন উপজেলার অর্জনপাড়া মদিনাতুল উলুম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বঘোষিত ভাইস চ্যান্সেলর (ভিসি) ড. রফিকুল ইসলাম। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী (১৭ নভেম্বর) ২০২০ ইং উভয় পক্ষকে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।
আদালতের মামলা সূত্রে জানা যায়, গত (৮ অক্টোবর) ২০২০ ইং দুপুর আড়াইটার দিকে অর্জনপাড়া মদিনাতুল উলুম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর (ভিসি) ড. রফিকুল ইসলাম প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের লক্ষে (৩৪০০১৩৮৭ নম্বর) হিসাব থেকে টাকা উত্তোলনের জন্য সোনালী ব্যাংক ভবানীগঞ্জ শাখায় যান।
ওই সময় ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক আহম্মেদ তারিক হাসানের সাথে ভিসি রফিকুল ইসলামের বাগ-বিতান্ডা হয়। ভিসি রফিকুল ইসলাম উত্তেজিত হলে ব্যাংকের সিকিউরিটি গার্ডেরা তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ব্যাংক থেকে বের করে দেয়। বিষয়টি তিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সকলকে অবহিত করেন। কোথাও কোন বিচার না পেয়ে আদালতের আশ্রয় নেন বলে তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের জানান। এছাড়াও তাকে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি দিচ্ছে বলে এজাহারে উল্লেখ করেছেন।
এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে সোনালী ব্যাংক ভবানীগঞ্জ শাখা ব্যবস্থাপক আহম্মেদ তারিক হাসান জানান, কাউকে ভয়ভীতি দেখানোর প্রশ্নই উঠেনা। এছাড়াও অর্জনপাড়া মদিনাতুল উলুম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের নামে কোন হিসাব নম্বর নেই। অথচ তিনি সব সময় ব্যাংকে এসে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কাজের বিঘ্ন সৃষ্টি করেন। ওই সব কারনে সিকিউরিটি গার্ডের সদস্যরা তাকে ব্যাংকে ঢোকতে দেয় না বলে তিনি জানান।
Facebook Comments Box
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ