September 23, 2021, 8:45 pm

শিরোনাম :
বেনাপোল স্হল পথে পাসপোট যাত্রীরা সপ্তাহের ৭দিনই যাতায়াত করতে পারবে। বিদেশি পিস্তল গুলি মাদক সহ যুবক আটক ‘‘ভালবাসার এক অক্ষয় কীর্তি” শার্শায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট এক দোকানদারের মৃত্যু জৈন্তাপুরে স্কুল ছাত্রী ধর্ষিত, ধর্ষক আটক শুধু দামী খাবারই পুষ্টিকর খাবার নয়,জৈন্তাপুরে সূচনার মাসিক সভায় বক্তারা বেনাপোলে সিএন্ডএফ অফিসের তালা ভেঙে মালামাল চুরি যশোরে সোনার বার সহ আটক ব্যক্তির ১৪ বছর দণ্ড নোয়াখালীর রিক্সা চালক হত্যা মামলার আসামী নরুল আমিন বেনাপোলে গ্রেফতার নিজস্ব কর্মসূচির পাশাপাশি শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণে সামাজিক সংগঠনগুলোকে এগিয়ে আসার আহ্বান লালপুরে আখ পরিবহনের অপরাধে ১০ হাজার টাকা জরিমানা পরিকল্পিত ও বাসযোগ্য গড়ে তোলাই বর্তমান সরকারে অন্যতম লক্ষ্য, শ্রীমঙ্গলে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ভারত থেকে চিকিৎসা নিয়ে দেশে ফেরার সময় বেনাপোল ইমিগ্রেশনে পাসপোট যাত্রীর মৃত্যু ইসলামপুরে গোয়ালের চর ওয়ার্ড যুবলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত নাটোরে র‍্যাবের অভিযানে ৭ মাদকসেবী আটক  যশোরের দুই যুবক কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে পানিতে ডুবে মৃত্যু সৌদি প্রবাসী বাংলাদেশী যুবকের ৬৭ দিন অপেক্ষার পর মরদেহ পেল স্বজনরা মৌলভীবাজারে শ্রীহট্ট সাহিত্য সংসদের কমিটি গঠন ১৯ বিজিবি ক্যাম্পের নামে জায়গা দখল জেলা প্রশাসক বরাবরে অভিযোগ লালপুরে তোহিদুল ইসলাম বাঘার গনসংযোগ ও উঠান বৈঠক

ঢাবির শতাধিক কর্মকর্তার পদোন্নতির আবেদন ভুয়া সনদে

Spread the love

ডিটেকটিভ ডেস্কঃঃ

কম্পিউটার দক্ষতা বিষয়ক ভুয়া সনদ দিয়ে পদোন্নতির আবেদন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতাধিক কর্মকর্তা। যদিও, তারা কম্পিউটারের কিছুই জানেন না। এর আগেও অনেক কর্মকর্তা এমন সনদ দিয়ে পদোন্নতি নিয়েছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাদের পদোন্নতির জন্য এক বছরের কম্পিউটার কোর্সের প্রয়োজন হয়। সে কোর্স না করলে পদোন্নতির নিয়ম নেই।

ঢাবির এমনই এক কর্মকর্তা মনির হোসেন। তিনি কম্পিউটারের এক বছরের কোর্স করে পদোন্নতি নিয়েছেন। কিন্তু কম্পিউটার চালু করে দেখানোর কথা বললেই তিনি উঠে চলে যান।

আরেক কর্মকর্তা নায়না ফেরদৌস কম্পিউটারের কোর্স করেছেন। কিন্তু তার অফিসে গিয়ে এ বিষয়ে কথা বলার জন্য ফোন দিলে তিনি আর অফিসেই আসেন নি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এরকম অনেক কর্মকর্তাই কম্পিউটারের সনদ নিয়ে পদোন্নতি নিয়েছেন। তবে, তাদের অনেকেই কম্পিউটার চালাতেই পারেন না। নতুন করে পদোন্নতির আবেদন করেছেন শতাধিক কর্মকর্তা। যাদের বেশিরভাগই সনদ নিয়েছেন আজিজ সুপার মার্কেটের কর্মযোগ সংস্থা নামের প্রতিষ্ঠান থেকে।

অথচ আজিজ সুপারে এই প্রতিষ্ঠানের ঠিকানায় গিয়ে দেখা গেল কাপড়ের দোকান। বছরখানেক আগেই এই প্রতিষ্ঠান উঠে গেছে। কোন ক্লাস না নিয়েই সনদ দিতো তারা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলছে, নতুন করে ভুয়া সনদ দিয়ে পদোন্নতির আবেদনগুলো আটকে দেয়া হয়েছে। এসব বিষয়ে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস উপাচার্য্যের।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এম আখতারুজ্জামান বলেন, “যতদ্রুত সম্ভব এবিষয়ে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে”।

এছাড়া ভুয়া সনদ দেয়া প্রতিষ্ঠানের বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকেও অনুরোধ জানানো হয়েছে।

//ইয়াসিন//

Facebook Comments Box
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ