May 9, 2021, 11:00 pm

শিরোনাম :
যাত্রাবাড়ী ও দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ এলাকায় পৃথক অভিযানে গাঁজা ও ইয়াবাসহ ০৩ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার রাবি ভিসির ‘মানবিক নিয়োগ’ টিকবে কি? ২৪ ঘণ্টায় আরো ৫৬ মৃত্যু দণ্ডিত হওয়ায় বিদেশে চিকিৎসা নিতে যেতে পারবেন না খালেদা নতুন নিয়োগপ্রাপ্তদের যোগদান স্থগিত করলো রাবি প্রশাসন ফেরি বন্ধ থাকলেও ঘাটে বাড়িফেরা মানুষের ভিড় যশোরে দু’জনের শরীরে করোনার ইন্ডিয়ান ভ্যারিয়েন্ট ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু অতিদরিদ্রদের ৪০ দিনের কর্মসূচির নামে কোটি টাকা লুটপাটের পায়তারা কিটের মূল্য কমলেও কমেনি বেসরকারি ল্যাবে করোনা পরীক্ষার ফি খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার বিষয়ে মতামত কাল: আইনমন্ত্রী ভারতে একদিনে ৪ হাজারের বেশি মৃত্যুর নতুন রেকর্ড শ্রীমঙ্গলে ১ কোটি ২৫ লাখ টাকার ভারতীয় চশমা—সানগ্লাস আটক চীনা রকেটের ধ্বংসাবশেষ এ সপ্তাহেই আছড়ে পড়বে পৃথিবীতে ইসলামের নামে সহিংসতায় জড়িতরা অমানুষ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সেনা প্রত্যাবর্তনে আফগানিস্তানে যুদ্ধবিমান পাঠাবে আমেরিকা আইপিএল স্থগিতে ক্ষতি ২৮৮১ কোটি টাকা ঈদের আগে অস্থির নিত্যপণ্যের বাজার জগন্নাথপুরে ইউনিয়ন শ্রমিকলীগ সভাপতিকে প্রাণ নাশের হুমকি জগন্নাথপুরে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা পটুয়াখালীতে একাধিক চুরি, ডাকাতি ও ওয়ারেন্ট ভুক্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার

কোভ্যাক্সে চীনের যোগদান যৌথ প্রচেষ্টার সফলতা: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

Spread the love

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃঃ

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং বিশ্বের টিকা ও ইমিউনাইজেশন লিগ-গ্যাভির উদ্যোগে গঠিত ‘করোনাভাইরাস নিউমোনিয়ার টিকা বাস্তবায়ন পরিকল্পনা (কোভ্যাক্স)’ তে অক্টোবরে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দিয়েছে চীন।

চীনের যোগদানকে স্বাগত জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মুখপাত্র মার্গারেট হারিস।

চীনের গণমাধ্যমকে দেয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে সম্প্রতি তিনি বলেছেন, এ পরিকল্পনায় চীনসহ বেশ কিছু দেশের যোগদান বিশ্বের যৌথ প্রচেষ্টার অভূতপূর্ব সফলতা, যা সত্যিকার অর্থে ঐক্যের প্রতীক। সব দেশকে যত দ্রুত সম্ভব ন্যায়সঙ্গতভাবে টিকা দেয়াই কোভ্যাক্সের লক্ষ্য। আর এ পরিকল্পনায় চীনের যোগ দেয়ায় বিশ্বের অধিকাংশ মানুষের অংশগ্রহণ নিশ্চিত হয়েছে।  এতে করে বিভিন্ন দেশের উচ্চঝুঁকিতে থাকা মানুষগুলোকে নিরাপদ, কার্যকর ও গ্রহণযোগ্য টিকা সরবরাহ করা সম্ভব হবে।

মার্গারেট হারিস আরও বলেন, কোভ্যাক্সে চীনের যোগদান মানব স্বাস্থ্যের অভিন্ন কমিউনিটির চিন্তাধারায় চীনের নিজস্ব প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের মাধ্যমে টিকাকে বিশ্বের গণপণ্য হিসেবে পরিণত করার ব্যবস্থা জোরদারে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। চীন ও অন্যান্য দেশ একসঙ্গে এই অভূতপূর্ব আন্তর্জাতিক উদ্যোগে অংশ নেয়া সত্যিকার অর্থে ঐক্যের প্রতিফলন।  বহুপক্ষবাদ ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতার দিক থেকে তা বিরাট একটি সাফল্য।

হারিস আরও বলেন, আমরা আশা করি, বিজ্ঞানসম্মত পদ্ধতিতে সবার চেষ্টার মাধ্যমে করোনাভাইরাসের মহামারী প্রতিরোধ করা যাবে। এটি শুধু প্রযুক্তির সঙ্গেই সম্পর্কিত নয়, বরং যৌথ প্রচেষ্টা আমাদের বিভিন্ন স্বাস্থ্যগত হুমকি থেকে রক্ষা করতে পারবে। আমাদের আরও ভালো করতে হবে, যাতে বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ করা যায়।

প্রসঙ্গত, বর্তমান বিশ্বে প্রায় দুই শতাধিক করোনাভাইরাসের টিকার ক্লিনিকাল ট্রায়াল বা প্রি-ট্রায়াল চলছে। ১৮৪ দেশ ও অঞ্চল কোভ্যাক্সে অংশ নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

Facebook Comments Box
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ