December 7, 2021, 3:03 am

শিরোনাম :
যশোরে সবজি চাষিদের ব্যাপক ক্ষতি হাফ ভাড়া ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে বৃষ্টি ভিজেই শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন যশোরে সর্বোচ্চ ৮৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাতের রেকর্ড যুক্তরাষ্ট্রে শেখ ফজলুল হক মণি’র জন্মদিন পালিত কুয়াকাটা পৌরসভার সাফাই গেয়ে সংবাদ সম্মেলন জৈন্তাপুরে স্কুল ছাত্রের উপর চোরাকারবারীদের আক্রমন নীলফামারীর জঙ্গি আস্তানা থেকে ৫ জন আটক বোরহানউদ্দিনে নৌকার প্রার্থীর সমর্থক ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকের সংঘর্ষের অভিযোগ আহত ১ চৌগাছায় ট্রাফিক পুলিশ কতৃক ৫৪ মোটরসাইকেল জব্দ গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে অটোরিকশার ওড়না পেচিয়ে প্রান গেল স্কুলশিক্ষিকা শুক্লা রানী সেন বাণীগ্রাম ইউপিতে প্রার্থী হচ্ছেন ক্ষুব্ধ আব্দুল কাদির! নবাবগঞ্জে পায়ের রগ কেটে যুবককে হত্যা দিনাজপুরে মানি লন্ডারিং আইনের মামলায় যুবলীগের সাবেক নেতা কারাগারে সিরাজগঞ্জের মুক্তিযোদ্ধা দিবস বাস্তবায়ন কমিটি উদ্যোগে ১লা ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধা দিবস পালন হবিগঞ্জ সদর উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন ॥ ৪টি নৌকা এবং ৪টিতে স্বতন্ত্র ও বিদ্রোহী প্রার্থীর জয়। রাজধানীর শ্যামপুর এলাকা হতে ০৮ কেজি গাঁজাসহ ০৩ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার শরীয়তপুর জেলার গোসাইরহাট উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভাবে সম্পন্ন হয়েছে। ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের (আইডিইবি) ৫১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন। প্রান্তিক শিশুদের মানসম্পন্ন শিক্ষায় ৩ কোটি ৪৭ লাখ ডলার অনুদান দিয়েছে ইউনিসেফ। এমপিওভুক্তির যোগ্য সরকারি স্বীকৃতিপ্রাপ্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংখ্যা সাড়ে আট হাজার।

আসন্ন শৈলকুপা ইউপি নির্বাচনে আবাইপুর ইউনিয়নে আ’লীগের যোগ্য প্রার্থী মোক্তার আহমেদ মৃধা জনসমর্থনে এগিয়ে

Spread the love

মনিরুজ্জামান সুমন,ঝিনাইদহ:

 

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় ইউপি নির্বাচনের হাওয়া বইতে শুরু করেছে। ইউপি নির্বাচনে শৈলকুপার ১১ নং আবাইপুর ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মোক্তার আহমেদ মৃধা জনপ্রিয়তায় শীর্ষে রয়েছেন। তার পক্ষে ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামের সাধারণ ভোটারদের জনসমর্থন রয়েছে।
বীর মুক্তিযোদ্ধা মোক্তার আহমেদ মৃধা আওয়ামীলীগের একজন ত্যাগী ও সাহসী প্রবীন নেতা বলে বিবেচিত। দীর্ঘ ৪৫ বছর যাবৎ আওয়ামীলীগের হাল টেনে আসছেন। রাজনৈতিক জীবনে দলের জন্য অনেক ত্যাগ শিকার করেছেন। বিগত সময়ে তিনি উপজেলার ১১ নং আবাইপুর ইউনিয়নে বিএনপির আমল থেকে পরপর দুইবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এছাড়াও তিনি শৈলকুপা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন দীর্ঘদিন। তিনি বর্তমানে ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য।
১১ নং আবাইপুর ইউনিয়নসহ শৈলকুপা উপজেলা তথা ঝিনাইদহ জেলাব্যাপী আওয়ামীলীগের একজন ত্যাগী ও সাহসী নেতা বলে সবাই জানে। জীবনের বেশীরভাগ সময় তিনি ব্যয় করেছেন দলের পেছনে নি:স্বার্থ শ্রম দিয়েছেন। ওই ইউনিয়নের কৃপালপুর গ্রামের বাসিন্দা তিনি।
এবারের ইউপি নির্বাচনে এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে মোক্তার আহমেদ মৃধা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হোক এমনটিই আশা করছেন ইউনিয়নের সাধারণ জনগণ।
গ্রামাঞ্চলে ভোটারদের মধ্যে তাকে নিয়ে উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা দিয়েছে। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে মাঠে, বাজারে ও গ্রাামে গ্রাামে তাকে নিয়েই হই হুল্লুড় শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যেই ইউনিয়নের সাধারণ ভোটাররা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোক্তার আহমেদ মৃধাকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করতে এলাকায় কার্যক্রম শুরু করে দিয়েছেন।
এলাকায় একজন সৎ, ত্যাগী, সাহসী ও নিষ্ঠাবান রাজনীতিক ব্যক্তিত্ব হিসাবে তার পরিচিতি রয়েছে। এই ত্যাগী নেতা আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন নিয়ে ইউপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করলে এবার বিপুল ভোটে বিজয়ী হবেন বলে ইউনিয়নবাসীর ধারণা।
এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে একজন যোগ্য প্রার্থী হিসেবে মোক্তার আহমেদ মৃধাকে চেয়ারম্যান হিসাবে দেখতে চান ইউনিয়নবাসী।
সরেজমিনে আবাইপুর ইউনিয়ন ঘুরে দেখা গেছে, গ্রামাঞ্চলের দোকান-পাট, চায়ের টেবিলে ঘুরে ফিরছে ইউনিয়ন নির্বাচনের খোঁজ-খবর। এখানে চেয়ারম্যান প্রার্থীর কয়েকজনের নাম শোনা গেলেও প্রকৃত আওয়ামীলীগের নেতা হিসেবে মোক্তার আহমেদ মৃধার জনপ্রিয়তা রয়েছে শীর্ষে। এই ত্যাগী প্রবীন নেতা ছাড়া যদি অন্য কোন আওয়ামীলীগের লেবাসধারী বিএনপি-জামায়াতের কর্মীরা সরকার দলীয় মনোনয়ন পায় তবে এবারের নির্বাচনে আওয়ামীলীগের দলীয় নেতা-কর্মীরা তাকে প্রত্যাক্ষান করতে পারে বলে আশংকা রয়েছে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মোক্তার আহমেদ মৃধা জানান, গত ইউপি নির্বাচনে দল আমাকে মনোনয়ন দিয়েছিল কিন্ত আমাকে দলীয় নেতা কর্মীরা কোনো সহযোগীতা করেনি,আমার লোকজনের উপর বারবার হামলা করেছিল,আমার উপর হামলা হয়েছিল, প্রশাসন বিদ্রোহী প্রাথর্ীূর সাথে আতাত করে আমাকে নির্বাচন থেকে সড়ে দাড়াতে বাধ্য করেছিল। আমি নৌকা পেয়্ওে মাঠে থাকতে পারিনি, আমার কর্মীদের উপর একদিকে প্রশাসন অণ্যদিকে বিদ্রোহী প্রার্থীর লোকজন বিভিন্নভাবে নির্যাতন করেছিল। তাই এবার আমি প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছি।  আবারো ত্যাগী আওয়ামীলীগের কর্মী হিসেবে আমি আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশা করছি। আমাকে দলীয় মনোনয়ন থেকে বঞ্চিত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে কতিপয় অসাধু ধর্ণাঢ্য ব্যক্তি। টাকার জোরে তারা দলীয় মনোনয়ন কিনে জোরপূর্বক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে এলাকায় দু:শাসনের রাজত্ব কায়েম করতে চায়। সুষ্ঠ অবাধ নির্বাচনের জন্য তিনি এবার প্রশাসনের সহযোগীতা কামনা করছেন।

Facebook Comments Box
Share Button

      এ ক্যাটাগরীর আরও সংবাদ